বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, ক্ষমতাসীন দল সংবিধান অনুসারে রুটিন ওয়ার্ক চালিয়ে যাবে। নির্বাচন পরিচালনা করবে নির্বাচন কমিশন। কুমিল্লা ও রংপুরে নিরপেক্ষভাবে নির্বাচন সম্পন্ন করেছে এ নির্বাচন কমিশন। আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনও এ নির্বাচন কমিশনের অধীনে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হবে। মন্ত্রী বলেন, ৮ ফেব্রুয়ারি একটি মামলার রায় নিয়ে রাজপথ উত্তপ্ত করার চেষ্টা করা হচ্ছে। এর আগে ২০১৩ এবং ২০১৪ সালেও তারা রাজপথ উত্তপ্ত করার চেষ্টা করেছিল, কিন্তু লাভ হয়নি। মন্ত্রী আজ কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার জগন্নাথদীঘির পশ্চিমপাড়ে অবস্থিত সৈয়দা আঞ্জুমান আরা বালিকা বিদ্যালয়ের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা ও এফবিসিসিআইয়ের সাবেক সভাপতি শিল্পপতি মাহাবুবুর রহমানের সভাপতিত্বে ওই অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, রেলমন্ত্রী ও কুমিল্লা দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুজিবুল হক, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য মোজাফ্ফর হোসেন পল্টু, কুমিল্লা জেলা প্রশাসক মো. জাহাংগীর আলম, কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ডের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান প্রফেসর মো. আবদুস ছালাম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (দক্ষিণ) আবদুল্লাহ আল-মামুন, ব্যবসায়ী নেতা সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মেহের মকবুলা ও স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান হাজী জানে আলম ভূঁইয়া প্রমুখ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে তোফায়েল আহমেদ আরও বলেন, বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে এদেশ স্বাধীন হয়েছে। জাতির পিতার জন্ম না হলে আমরা আজও দাসত্বের শৃংখলে আবদ্ধ থাকতাম। তিনি ৭ মার্চের ভাষণ দিয়ে বাঙালি জাতিকে ঐক্যবদ্ধ করেছিলেন।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক এমপি বলেন, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলে দেশের মানুষের কল্যাণে কাজ করে। দেশের জনগণের কাছে যার গ্রহণ যোগ্যতা সবচেয়ে বেশি, তিনিই হচ্ছেন শেখ হাসিনা। জনবান্ধব নেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে ইতোমধ্যে দেশে ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। এর ধারাবাহিকতায় চৌদ্দগ্রামেও ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে, যা বিগত সময়ে হয়নি। আগামী জুন মাসের মধ্যে চৌদ্দগ্রামের একটি বাড়িও বিদ্যুৎবিহীন থাকবে না। সে লক্ষ্যে আমাদের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, সাবেক পররাষ্ট্র সচিব মো. মহসিন, বাংলাদেশ ব্যাংকের পরিচালক আফতাবুল ইসলাম মঞ্জু, মেজর জেনারেল (অব.) হারুন-অর-রশীদ, মেজর জেনারেল (অব.) সাঈদ আহমেদ, চৌদ্দগ্রাম উপজেলা চেয়ারম্যান আবদুস সোবহান ভুঁইয়া হাসান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সামছুদ্দিন আহমেদ চৌধুরী সেলিম, পৌর মেয়র মিজানুর রহমান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মাঈন উদ্দিন, মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংকের এএমডি মো. হাশেম চৌধুরী, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান এবিএম এ বাহার, রাশেদা আখতারসহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।