পুরান ঢাকার বিশেষ জজ আদালতে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মামলার শুনানি শেষে বাসায় ফেরার পথে ফের সহিংতা হয়েছে। এবারো পুলিশের সঙ্গে বিএনপি নেতাকর্মীদের সংঘর্ষ হয়েছে।
বিএনপি নেতাকর্মীদের হামলায় পুলিশের পাঁচ সদস্য আহত হয়েছে বলে জানিয়েছেন পুলিশের রমনা বিভাগের উপ কমিশনার মারুফ হোসেন সরদার। বিএনপির ৫ নেতাকর্মীকে আটক করা হয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।
পুরান ঢাকার বকশিবাজারে বিশেষ জজ আদালতে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় আসামিপক্ষের যুক্তিতর্ক উপস্থাপনের শেষ দিন হিসেবে নির্ধারিত ছিল বৃহস্পতিবার। শুনানিতে অংশ নিতে সকালে আদালতে যান খালেদা জিয়া। কিন্তু তার আইনজীবীরা বক্তব্য শেষ করতে না পারায় পরে ২৬, ২৭ ও ২৮ ডিসেম্বর আরো তিনদিন যুক্তি উপস্থাপনের সুযোগ দিয়েছেন বিচারক। শুনানি শেষে খালেদা জিয়া ফেরার পথে হাইকোর্টের সামনে বিএনপির নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। সেখানেই পুলিশ সদস্যরা আহত হন।
বিএনপির নেতা-কর্মীরা হাইকোর্টের সামনে নিরাপত্তায় থাকা পুলিশ সদস্যদের ওপর ইটপাটকেল ছোড়ে বলে জানিয়েছেন পুলিশ কর্মকর্তারা। আহত পুলিশ সদস্যদের রাজারবাগ কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে বিএনপির পাঁচ কর্মীকে আটক করে পুলিশ।
শাহবাগ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) জাফর আলী বিশ্বাস বলেন, ‘আজকের ঘটনায় পাঁচজনকে আটকের কথা আমি শুনেছি। এর চেয়ে বেশি কিছু বলতে পারব না।’
এর আগে গত ১৯ ডিসেম্বর খালেদা জিয়া আদালতে হাজিরা শেষে হাইকোর্ট এলাকায় পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ হয় বিএনপির নেতা-কর্মীদের। সে সময় তারা বেশ কিছু গাড়ি ভাঙচুরও করে।