ঢাকা, ১৪ আশ্বিন (২৯ সেপ্টেম্বর) :

তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেছেন, জঙ্গিদমন যুদ্ধের ভেতরেই শিল্প-সাহিত্য-সংস্কৃতির চর্চা সমাজে অসাম্প্রদায়িকতার চেতনা যোগাবে। মন্ত্রী আজ ঢাকায় জাতীয় জাদুঘরের প্রধান মিলনায়তনে ‘দর্শক শ্রোতা পাঠক ফাউন্ডেশন আয়োজিত স্বর্ণালী সন্ধ্যায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় একথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, অতীত শেকড়ের ওপরেই দাঁড়ায় বর্তমান, নির্মিত হয় ভবিষ্যৎ। আর সংস্কৃতি নিজের শেকড়কে চিনতে শেখায়। তাই নিজেকে জানতে শিল্প-সাহিত্য-সংস্কৃতি-চলচ্চিত্রের চর্চা অব্যাহত রাখতে হবে। তিনি এসময় গণমাধ্যমকে গণতন্ত্রের অতন্দ্র প্রহরী বলে বর্ণনা করে বলেন, তথ্যপ্রযুক্তি গণমাধ্যমে নতুন মাত্রা দিয়েছে। এর ফলে মানুষ ও রাষ্ট্র এখন স্বচ্ছ কাঁচের ঘরের বাসিন্দা। এই স্বচ্ছ ঘরে সকলের ব্যক্তিগত ও রাষ্ট্রীয় নিরাপত্তা বজায় রাখতে যে আধুনিক ব্যবস্থাপনা প্রয়োজন, সরকার সে লক্ষ্যেই সম্প্রচার কমিশন গঠন করছে।

অনুষ্ঠানে ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে শিল্প-সাহিত্য-সংস্কৃতিতে অবদানের জন্য শিল্পকলা একাডেমি, বাংলাদেশ টেলিভিশন, সামদানী আর্ট ফাউন্ডেশন ও ঢাকা লিট ফেস্টকে সম্মাননা স্মারক হস্তান্তর করেন তথ্যমন্ত্রী। আয়োজক সংস্থার সভাপতি জিয়াউল হাসান কিসলুর সভাপতিত্বে ও ড. রাশেদা রওনকের সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে আলোচনা করেন সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের সচিব ইব্রাহিম হোসেন খান ও চ্যানেল আইয়ের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফরিদুর রেজা সাগর।

এদিন সকালে বিশ্ব সাহিত্য কেন্দ্রে ত্রিকোণ চলচ্চিত্র শিক্ষালয়ের চলচ্চিত্র নির্মাণ পাঠ্যধারা সমাপনী সনদ বিতরণ করেন তথ্যমন্ত্রী। প্রখ্যাত অভিনেতা আকবর হোসেন পাঠান (ফারুক), চলচ্চিত্রকার আশরাফ শিশির, ইহতেশাম আহমদ প্রমুখ অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন।