এশিয়া-প্যাসিফিক অঞ্চলে এপিআইএস মাস্টার প্লান বাস্তবায়নে দ্রুততম সময়ে কর্মপন্থা গ্রহণ করতে ঐকমত্য
শেষ হলো জাতিসংঘের ইকোনমিক এন্ড সোস্যাল কমিশন ফর এশিয়া এন্ড দ্য প্যাসিফিক (এসকাপ) এর এশিয়া প্যাসিফিক ইনফরমেশন সুপার হাইওয়ে (এপিআইএস) এর স্টিয়ারিং কমিটির দু’দিনব্যাপী অধিবেশন।গতকাল রাতে রাজধানীর হোটেল সোনারগাঁও এ এপিআইএস এর স্টিয়ারিং কমিটির প্রথম অধিবেশনের আনুষ্ঠানিক সমাপনী অনুষ্ঠিত হয়।
সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহ্মেদ পলক বলেন, আধুনিক সভ্যতার পুরো সময় জুড়েই প্রযুক্তির প্রতিনিয়ত উন্নতির ফলে মানুষ বারংবার চাকুরী হারানোর শঙ্কায় ভূগেছে। কারণ মানুষের কাজ ও শ্রম শক্তির ওপর অটোমেশনের বিরাট প্রভাব রয়েছে। এই প্রভাব কখনোই অস্বীকার করা যাবে না। মানুষের অনেক ধরণের কাজ এখন মেশিন করছে। অনেকেই চাকুরী হারানোর সম্ভাব্য ঝুঁকিতে রয়েছে। কিন্তু প্রযুক্তি/মেশিনের প্রভাবে প্রথম শিল্প বিপ্ল¦ থেকে আজ অবদি মানুষ যে পরিমাণ চাকুরী/কাজ হারিয়েছে, তার চেয়ে বেশী সৃষ্টি হয়েছে। কারণ, এই প্রযুক্তি ব্যবহার করেই মানুষ প্রয়োজনীয় দক্ষতা অর্জন করার মাধ্যমে পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে নিজের কর্মসংস্থানের ধরণ পরিবর্তন করতে সক্ষম হয়েছে। তাই, প্রযুক্তির এই যুগে আমাদেরকে প্রয়োজনীয় দক্ষতা অর্জন করতে হবে।
প্রতিমন্ত্রী পলক এ সময় আরও বলেন, এশিয়া প্যাসিফক অঞ্চলে ৪ বিলিয়নেরও বেশী মানুষ বাস করে। কিন্তু এখানে ইন্টারনেট ঘনত্ব ৫০ শতাংশেরও কম। তাই, ইউএন-এসকাপভূক্ত এই অঞ্চলে ইন্টারনেট ঘনত্ব বাড়াতে আমাদেরককে পারস্পরিক আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক সহযোগিতা বাড়াতে হবে। এপিআইএস এর মাধ্যমে আমরা সে লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারব। এর ফলে এই অঞ্চলের মানুষের জন্য আমরা কম মূল্যে নিরবিচ্ছিন্ন ইন্টারনেট সংযোগ দিতে পারব। নিশ্চিত হবে ডিজিটাল ইকোনমিতে আঞ্চলিক অংশগ্রহণ।
অনুষ্ঠানে ইউএনএসকাপ এর আইসিটি এন্ড ডিসাস্টার রিস্ক রিডাকশান ডিভিশনের ডাইরেক্টর তিজিয়ানা বোনাপেস, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো: রাশেদুল ইসলাম, এপিআইএস ওয়ার্কিং গ্রুপের সভাপতি ও আইসিটি অধিদপ্তরের মহাপরিচালক বনমালী ভৌমিক বক্তব্য রাখেন।
উল্লেখ্য যে, এপিআইএস এর মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়নের প্রথম পদক্ষেপ হিসেবে স্টিয়ারিং কমিটির এই অধিবেশনে জাতিসংঘের এসকাপভূক্ত ৫৬ দেশের প্রতিনিধিসহ দেশী-বিদেশী শতাধিক প্রতিনিধি অংশ নিচ্ছে। এই অধিবেশনে এপিআইএস এর মহাপরিকল্পনায় অন্তর্ভূক্ত কানেক্টিভিটি, ইন্টারনেট ট্রাফিক ম্যানেজমেন্ট, ই-রেসিলিয়েন্স এবং ব্রডব্যান্ড ফর অল — এই চারটি স্তম্ভ বাস্তবায়নে ইউএনএসকাপভূক্ত দেশ, সহযোগী আঞ্চলিত ও আন্তর্জাতিক সংস্থাসমূহের প্রতিনিধিগণ ৮টি সেশনে এই পরিকল্পনা বাস্তবায়নের চ্যালেঞ্জ ও করণীয় নিয়ে আলোচনা করে। প্রতিনিধিগণ এশিয়া-প্যাসিফক অঞ্চলে এপিআইএস মাস্টার প্লান বাস্তবায়নে দ্রুততম সময়ে কর্মপন্থা গ্রহণ করতে ঐকমত্য পোষণ করে।