শাহারিয়া শাহাদাৎ, রির্পোটার
চাঁপাইনবাবগঞ্জ:-প্রতিমা তৈরি কাজ প্রায় শেষ। তাই রংতুলির আঁচড়ের দেবী মহামায়া। এবারে সবচেয়ে ঐতিহ নিয়ে প্রতিমা তৈরি হয়েছে শহর ও গ্রামের বিভিন্ন মন্দিরে। এবার দুর্গোৎসবে বিভিন্ন জাতিগোষ্ঠী যারা সানাতন ধর্মাবলম্বী তাদের কৃষ্টি সংস্কৃতি ও ঐতিহ ফুটে উঠবে। তাই মন্ডপ প্রতিমাগুলোকে তেমনিভাবে সাজানো হয়েছে। প্রতিটি প্রতিমার শরীর থেকে মুকুট পর্যন্ত হাতের শৈপ্লিক কারুকাজ। কেবল রং তুলির আঁচড়ে চলছে সাজসজ্জার কাজ জেলা পূজা উদ্যাপন কমিটি মহিলা বিষক সম্পাদক রঞ্জনা বর্মণ জানাই চাঁপাইনবাবগঞ্জ শহর সহ গ্রাম অঞ্চল বিভিন্ন মন্দিরে ও পাড়ায় পাড়ায় দুর্গোৎসবে মেতেছে। প্রায় শেষ পর্যায়ে ব্যস্ত সময় পার করছে মৃৎশিপ্লিরা। চাঁপাইনবাবগঞ্জ এবারে সবচেয়ে ঐতিহ নিয়ে প্রতিমা তৈরি হয়েছে শহর ও গ্রামের বিভিন্ন মন্দিরে। এবার দুর্গোৎসবে বিভিন্ন জাতিগোষ্ঠী যারা সানাতন ধর্মাবলম্বী তাদের কৃষ্টি সংস্কৃতি ও ঐতিহ ফুটে উঠতে পারে। তাই এবার দুর্গোৎসব আকর্ষণীয় ও জমজমাট হবে। জানা গেছে, এবার চাঁপাইনবাবগঞ্জ শহরসহ জেলায় মোট ১শত২৩টি পূজামন্ডপে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গোৎসবের আয়োজন করা হয়েছে। চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলা ৫৪টি, শিবগঞ্জে ৩২টি, গোমস্তাপুরে ২৬টি, নাচোলে ১০টি এবং ভোলাহাটে ২টি মন্ডপে পূজা অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। ২৬ সেপ্টেম্বর মহাষষ্ঠী পূজার মধ্য দিয়ে শুরু হবে শারদীয় দুর্গোৎসব। এরপর ২৭ সেপ্টেম্বর মহাসপ্তমী, ২৮ সেপ্টেম্বর মহা অষ্টমী, কুমারী ও সন্ধিপূজা, ২৯ সেপ্টেম্বর মহানবমী ও ৩০ সেপ্টেম্বর মহাদশমী। ওইদিন বিজয়া শোভযাত্রা ও কাপ্তাই লেকে প্রতিমা বিসর্জনের মধ্য দিয়ে সর্বজনীন কর্মসূচির অংশে শেষ হবে। গোমস্তাপুর উপজেলায় গোমস্তাপুর ইউনিয়ন কামারপাড়া দূর্গামন্দির,চৌডালা দূর্গামন্দির, বোলিয়া দূর্গামন্দির, রহনপুর শ্যমরায় শ্যমরায় দেব দূর্গামন্দির ঘুরে দেখা যায় মন্ডপের প্রতিমার রং তুলির কাজ প্রায় শেষের মূহুত। চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা পূজা উদ্যাপন কমিটি সভাপতি বাবুল কুমার ঘোষ জানাই আমরা সব মন্ডপে শান্তি-শৃঙ্খলাপূর্ণ পরিবেশে পূজা উদ্যাপনে সব ধরনের প্রস্ততি গ্রহন করেছি। প্রশাসনের পক্ষ থেকে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা জোগদারের বাবস্তা নেওয়া হয়েছে। এছারা সুষ্ঠু ও সাড়ম্বরপূর্ণভাবে দুর্গোৎসব আয়োজনে প্রতিটি মন্ডপে বিশেষ অর্থব বরাদ্দ দিয়েছে।