সম্প্রতি এক সমীক্ষায় জানা যায়, ভারতের নারীরা যৌনতায় উৎসাহী হলেও মা হতে তেমন রাজি নন। হিন্দু এবং মুসলিম ধর্মাবলম্বীদের মধ্যে জন্মের হার কত? সেই নিয়েই একটি সমীক্ষা হয়েছিল। সেই সমীক্ষায় উঠে এসেছে একটি ভয়াবহ তথ্য। গর্ভধারণের হার হিন্দু এবং মুসলিমদের মধ্যে কমে যাচ্ছে। শুধু হিন্দু কিংবা মুসলিমদের মধ্যেই নয়। সমস্ত ধর্মের মধ্যেই এই হার কমছে।

সমীক্ষা থেকে জানা যাচ্ছে, হিন্দুদের মধ্যে ২০০৫-০৬ সালে গর্ভধারণের হার ছিল ২.৬। যেখান ২০১৫-১৬ এর সমীক্ষা থেকে জানা গিয়েছে সেই হার কমে দাঁড়িয়েছে ২.১। হিন্দুদের পাশাপাশি মুসলিমদের মধ্যেও সেই হার ক্রমশ কমছে। হিন্দুদের থেকে মুসলিমদের মধ্যে সেই হার অনেক বেশি কমেছে। ৩.৪ থেকে তা কমে দাঁড়িয়েছে ২.৬।

ভারতের ন্যাশানাল ফ্যামিলি হেলথ সার্ভের থেকে এই সমীক্ষাটি করা হয়। সমীক্ষা থেকে জানা যাচ্ছে, জৈনদের মধ্যে এই হার ১.২। সমীক্ষায় উঠে এসেছে এদের মধ্যে শিক্ষার হার সবচেয়ে বেশি। শিখদের মধ্যে গর্ভধরণের হার ১.৬। বুদ্ধদের মধ্যে এই হার ১.৭। খ্রীষ্টানদের মধ্যে এই হার ২। ভারতে এই হার ২.২।

সমীক্ষা থেকে জানা যাচ্ছে, শিক্ষাগত যোগ্যতার হার যে কমিউনিটিতে সবচেয়ে কম তাদের গর্ভধারণের হার সবচেয়ে বেশি। পাশাপাশি যাদের আয় কম তাদের মধ্যে গর্ভধারণের হার অনেক বেশি। সমীক্ষা থেকে জানা যাচ্ছে, সেই হার ৩.২। আর যাদের মধ্যে হার বেশি তাদের মধ্যে এই হার ১.৫। কলকাতা টুয়েন্টিফোর।