ঢাকা, ২৭ কার্তিক (১১ নভেম্বর) :

আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, আইনজীবীদের বৃহত্তর স্বার্থে, আইন পেশার মান ও মর্যাদা অক্ষুন্ন রাখতে কেবল মেধা ও যোগ্যতার ভিত্তিতে বার কাউন্সিল সনদ প্রদান করা উচিত। মেধা ও যোগ্যতা যাচাইয়ের ক্ষেত্রে কোন ধরণের শৈথিল্য কাম্য নয়। এটি কঠোরভাবে প্রতিপালন করতে হবে।

 

আজ রাজধানীর অফিসার্স ক্লাব অডিটোরিয়ামে বাংলাদেশ বার কাউন্সিল তালিকাভুক্ত নবীন আইনজীবীদের সনদপত্র প্রদান অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন তিনি। প্রধান বিচারপতি (দায়িত্বরত) মোঃ আব্দুল ওহহাব মিঞা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

আইনমন্ত্রী বলেন, আমাদের মহান মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম লক্ষ্য ছিলো একটি শোষণ-বঞ্চনামুক্ত ন্যায়ভিত্তিক সমাজ প্রতিষ্ঠা করা। মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনার আলোকে গণতন্ত্রের ভিত্তি সুদৃঢ় করা এবং দেশে ন্যায় বিচার ও আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা করা বর্তমান সরকারেরও অন্যতম প্রধান লক্ষ্য। জনগণের প্রত্যাশাও সেটাই এবং এটি তাঁদের সাংবিধানিক অধিকারও। জনগণের এ প্রত্যাশা ও সাংবিধানিক অধিকার পূরণে আইনজীবী সমাজের ভূমিকা অপরিসীম।

বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের ভাইস-চেয়ারম্যান আব্দুল বাছেত মজুমদারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ বার কাউন্সিল এনরোলমেন্ট কমিটির চেয়ারম্যান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন, অ্যাটোর্নি জেনারেল ও বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের চেয়ারম্যান মাহবুবে আলম, সাবেক আইনমন্ত্রী আব্দুল মতিন খসরু, অ্যাডভোকেট স. ম. রেজাউল করিম অন্যদের মধ্যে বক্তৃতা করেন।