মার্সেল দ্বিতীয় আন্তঃকলেজ মহিলা রাগবি শনিবার শুরু
ওয়ালটন গ্রুপের পৃষ্ঠপোষকতায় বাংলাদেশে প্রথম মহিলা রাগবি প্রতিযোগিতা শুরু হয়েছিল। শুরু থেকেই বাংলাদেশ রাগবি ফেডারেশন ইউনিয়নের সঙ্গে রয়েছে ওয়ালটন গ্রুপ। তারই ধারাবাহিকতায় ক্রীড়াবান্ধব প্রতিষ্ঠান ওয়ালটন গ্রুপের জনপ্রিয় ব্র্যান্ড মার্সেল এর পৃষ্ঠপোষকতায় শনিবার থেকে পল্টন মাঠে শুরু হতে যাচ্ছে ‘মার্সেল দ্বিতীয় আন্তঃকলেজ মহিলা রাগবি প্রতিযোগিতা-২০১৭।’ আটটি দলকে নিয়ে চারদিন ব্যাপী এই প্রতিযোগিতা মঙ্গলবার ফাইনাল ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে শেষ হবে।

এই প্রতিযোগিতা সম্পর্কে বিস্তারিত জানানোর জন্য আজ বুধবার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামের সভাকক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন ওয়ালটন গ্রুপের অপারেটিভ ডিরেক্টর (স্পোর্টস এন্ড ওয়েলফেয়ার বিভাগের প্রধান) এফএম ইকবাল বিন আনোয়ার (ডন), বাংলাদেশ রাগবি ফেডারেশন ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মৌসুম আলী, যুগ্ম সম্পাদক সাঈদ আহমেদ এবং টুর্নামেন্ট কমিটির সম্পাদক ও সদস্য পারভীন পুতুলসহ অন্যান্যরা।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয় এবারের এই মার্সেল দ্বিতীয় আন্তঃকলেজ রাগবি প্রতিযোগিতায় ৮টি দল অংশ নিবে। দলগুলো হল শহীদ বীরউত্তম মো. আনোয়ার গার্লস কলেজ, সেন্ট্রাল উইমেন্স কলেজ, ঢাকা কমার্স কলেজ, গার্হস্থ্য অর্থনীতি কলেজ, নারায়ণগঞ্জ কলেজ, ক্যব্রিয়ান কলেজ, হাইমচর কলেজ ও সেন্ট্রাল উইমেন্স কলেজ হোস্টেল দল। আটটি দলকে দুটি গ্রুপে বিভক্ত করে লিগ পদ্ধতিতে প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে। দুটি গ্রুপের শীর্ষ চারটি দল সেমিফাইনালে উত্তীর্ণ হবে। সেমিফাইনাল থেকে দুটি দল ২৬ সেপ্টেম্বর ফাইনাল খেলবে। ট্রফি ছাড়াও চ্যাম্পিয়ন, রানার্স-আপ ও তৃতীয় স্থান অধিকারকারী দলের সকল খেলোয়াড়কে ওয়ালটন গ্রুপের পক্ষ থেকে হোম অ্যাপ্লায়েন্স দিয়ে উৎসাহিত করা হবে। এ ছাড়া ওয়ালটন গ্রুপের পক্ষ থেকে আট দলের সকল খেলোয়াড়কে জার্সি দেওয়া হবে।

শনিবার সকাল দশটায় পল্টন মাঠে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হবে। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন মার্সেল এর ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর চিত্রনায়ক আমিন খানসহ অন্যান্যরা।

সংবাদ সম্মেলনে এক বক্তব্যে এফএম ইকবাল বিন আনোয়ার (ডন) বলেন, ‘আমরা ওয়ালটন গ্রুপ প্রায় সবগুলো ফেডারেশনের সঙ্গেই কাজ করছি। বাংলাদেশে প্রথম মহিলা রাগবি প্রতিযোগিতা ওয়ালটন গ্রুপের পৃষ্ঠপোষকতায়ই অনুষ্ঠিত হয়েছে। আমরা আমাদের সাধ্যমতো চেষ্টা করছি রাগবির পাশে থাকার। দ্বিতীয় আন্তঃকলেজ রাগবি প্রতিযোগিতাটি আমাদের মার্সেল ব্র্যান্ডের ব্যানারে করতে যাচ্ছি। যথারীতি অন্যান্য প্রতিযোগিতার মতো এই প্রতিযোগিতার চ্যাম্পিয়ন, রানার্স-আপ ও তৃতীয় স্থান অধিকারকারী দলের সকল খেলোয়াড়কে ওয়ালটন গ্রুপের হোম অ্যাপ্লায়েন্স দিয়ে উৎসাহিত করা হবে। এছাড়া সব দলের খেলোয়াড়দের ওয়ালটনের পক্ষ থেকে জার্সি দেওয়ার বিষয়টি তো থাকছেই। আমি এই টুর্নামেন্টের সার্বিক সাফল্য কামনা করছি।’

ওয়ালট গ্রুপকে ধন্যবাদ জানিয়ে বাংলাদেশ রাগবি ফেডারেশন ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মৌসুম আলী বলেন, ‘ওয়ালটন গ্রুপ সব সময় আমাদের পাশে থাকার চেষ্টা করে। সে জন্য তাদের ধন্যবাদ জানাচ্ছি। ওয়ালটন ক্রীড়াক্ষেত্রে পৃষ্ঠপোষকতার দৃষ্টান্ত স্থাপন করে চলছে। ক্রিকেট, ফুটবল থেকে শুরু করে ছোট ছোট ফেডারেশন ও সংস্থার পাশেও দাঁড়াচ্ছে। খেলাধুলাকে এগিয়ে নিচ্ছে। তাদের মতো দেশে আরো অনেক বড় বড় কোম্পানি থাকলেও ওয়ালটনের মতো কেউ এভাবে ক্রীড়ার পৃষ্ঠপোষকতায় এগিয়ে আসে না। ওয়ালটন বাংলাদেশের একমাত্র প্রতিষ্ঠান যারা সব ধরনের খেলাধুলায় পৃষ্ঠপোষকতা করে। তারা তাদের সীমিত সামর্থ দিয়ে দেশের খেলাধুলাকে এগিয়ে নিচ্ছে। তারা শুধু রাগবি নয়, সব ফেডারেশনের সঙ্গেই যুক্ত হচ্ছে। এবারও তারা আমাদের সঙ্গে যুক্ত হওয়ায় ওয়ালটন গ্রুপকে ধন্যবাদ জানাই।’ সংবাদ সম্মেলনে মৌসুম আলী পল্টন মাঠের অতীত ঐতিহ্য তুলে ধরেন। পাশাপাশি বর্তমানে এই মাঠটির বেহাল দশার বিষয়টিও উল্লেখ করেন। যথাযথ কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ করেন বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামের লাগোয়া এই মাঠটি খেলার উপযুক্ত করে তুলতে।