বাংলাদেশে রাগবি খেলার পথচলা খুব বেশি দিনের নয়। আর মহিলা রাগবি তো একেবারেই নতুন। ২০১৪ সালে বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো শুরু হয় মহিলা রাগবি। আর সেটা শুরু হয়েছিল ওয়ালটন গ্রুপের পৃষ্ঠপোষকতায়। এরপর থেকে ধারাবাহিকতা রক্ষা করার চেষ্টা করে যাচ্ছে ক্রীড়াবান্ধব প্রতিষ্ঠানটি। মাঝে বেশ কয়েকবার আন্তঃকলেজ মহিলা রাগবি প্রতিযোগিতায় পৃষ্ঠপোষকতা করেছে ওয়ালটন গ্রুপ। এবার আবারো জাতীয় মহিলা রাগবি প্রতিযোগিতায় পৃষ্ঠপোষকতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছে তারা। ওয়ালটন গ্রুপের পৃষ্ঠপোষকতায় ও বাংলাদেশ রাগবি ফেডারেশন ইউনিয়নের ব্যবস্থাপনায় আগামী রোববার থেকে পল্টন মাঠে শুরু হতে যাচ্ছে ‘ওয়ালটন দ্বিতীয় জাতীয় মহিলা রাগবি প্রতিযোগিতা-২০১৭।’ তিনদিন ব্যাপী এই প্রতিযোগিতা মঙ্গলবার ফাইনাল ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে শেষ হবে।

প্রতিযোগিতার বিষয়ে বিস্তারিত জানানোর জন্য আজ বুধবার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামের সভাকক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন ওয়ালটন গ্রুপের অপারেটিভ ডিরেক্টর (স্পোর্টস এন্ড ওয়েলফেয়ার) এফএম ইকবাল বিন আনোয়ার (ডন), টুর্নামেন্ট কমিটির চেয়ারম্যান রখফার সুলতানা খানম (পুলিশের এআইজি, এডমিন), বাংলাদেশ রাগবি ফেডারেশন ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মৌসুম আলী, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক সাঈদ আহমেদ, সদস্য ও টুর্নামেন্ট কমিটির সদস্য পারভীন পুতুল, সদস্য দীন ইসলাম ও সিরাজুল ইসলামসহ ফেডারেশনের অন্যান কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

ওয়ালটন প্রথম জাতীয় মহিলা রাগবি প্রতিযোগিতায় ৮টি দল অংশ নিয়েছিল। এবার অবশ্য দল সংখ্যা বেড়েছে। ১২টি দল অংশ নিবে এবারের এই মহিলা রাগবিতে। দলগুলো হল- ঢাকা জেলা, নারায়নগঞ্জ জেলা, মানিকগঞ্জ জেলা, কিশোরগঞ্জ জেলা, জামালপুর জেলা, চট্টগ্রাম জেলা, হবিগঞ্জ জেলা, নড়াইল জেলা, বাগেরহাট জেলা, বরগুনা জেলা, জয়পুরহাট জেলা, দিনাজপুর জেলা ও ঠাকুরগাঁও জেলা।

প্রতিযোগিতার চ্যাম্পিয়ন ও রানার্স-আপ দল ট্রফি পাবে। এ ছাড়া চ্যাম্পিয়ন ও রানার্স-আপ দলের সকল খেলোয়াড়দের ওয়ালটন গ্রুপের পক্ষ থেকে হোম অ্যাপ্লায়েন্স দিয়ে উৎসাহিত করা হবে।

সংবাদ সম্মেলনে ওয়ালটন গ্রুপের অপারেটিভ ডিরেক্টর (স্পোর্টস এন্ড ওয়েলফেয়ার) এফএম ইকবাল বিন আনোয়ার (ডন) বলেন, ‘রাগবি ফেডারেশন ইউনিয়নের সঙ্গে আমাদের সম্পর্ক অনেক দিনের। এর আগেও আমরা রাগবির বিভিন্ন প্রতিযোগিতার সঙ্গে সম্পৃক্ত হয়েছি। প্রথম জাতীয় মহিলা রাগবি, প্রথম ও দ্বিতীয় আন্তঃকলেজ মহিলা রাগবিতেও পৃষ্ঠপোষকতা করেছি। এবারও ওয়ালটন দ্বিতীয় জাতীয় মহিলা রাগবি প্রতিযোগিতার সঙ্গে সম্পৃক্ত হয়েছি। আশা করছি এই প্রতিযোগিতার মাধ্যমে ভালো কিছু মহিলা রাগবি খেলোয়াড় উঠে আসবে। যারা আমাদের জাতীয় মহিলা রাগবি দলকে সমৃদ্ধ করবে। অন্যান্য প্রতিযোগিতার মতো এখানেও চ্যাম্পিয়ন ও রানার্স-আপ দলের সকল খেলোয়াড়কে ওয়ালটন গ্রুপের পক্ষ থেকে হোম অ্যাপ্লায়েন্স দিয়ে উৎসাহিত করা হবে। আমি এই প্রতিযোগিতার সর্বাঙ্গিন সাফল্য কামনা করছি।’

ওয়ালটন গ্রুপের প্রশংসা করে বাংলাদেশ রাগবি ফেডারেশন ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মৌসুম আলী বলেন, ‘আবারো জাতীয় মহিলা রাগবি প্রতিযোগিতায় পৃষ্ঠপোষকতার হাত বাড়িয়ে দেওয়ায় প্রথমেই ওয়ালটন গ্রুপকে ধন্যবাদ জানাব। ওয়ালটন বাংলাদেশের একমাত্র কোম্পানি যারা সব ধরণের খেলাধুলায় পৃষ্ঠপোষকতা করছে। যেটা দেশের ইতিহাসে বিরল। সবগুলো ফেডারেশন ওয়ালটনের পৃষ্ঠপোষকতায় টুর্নামেন্ট আয়োজন করছে। ওয়ালটনের মতো অন্যান্য কোম্পানি এগিয়ে আসলে ক্রীড়াঙ্গন আরো সচল হতে পারত। আশা করব ভবিষ্যতেও ওয়ালটন গ্রুপ আমাদের পাশে থাকবে।’