এন.আই.মিলন, বীরগঞ্জ (দিনাজপুর) প্রতিনিধি ঃ দিনাজপুরের বীরগঞ্জের বাংলাদেশ লুথারেন চার্চে মিশন ক্যাম্পাসে আদালতের ১৪৪ ধারা নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে গত বৃহস্পতিবার সমাবেশ করায় দু’পক্ষের মধ্যে ব্যাপক উত্তেজনা সৃষ্টি হয়।
জানাগেছে, উপজেলার সুজালপুর ইউনিয়নের জগদল ডাঙ্গাপাড়া গ্রামের মৃত তারীনী কান্ত রায়ের পুত্র মাইকেল কার্তিক রায় বীরগঞ্জ লুথারেন চার্চ এর সিনোড চেয়ারম্যনের পক্ষে ১টি মামলার প্রেক্ষিতে দিনাজপুরের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট আদালত গত ২৫/০২/২০১৮ইং তারিখে ২৪৬ স্মারক নং এ বিবাদী হরিশ বম্মর্ন, বিজয় রায়, কেশরী রায়, সুভাষ রায়, অতুল রায়, রতন বর্ম্মন, যাকোব সরকার, অরবিন্দু সরকার, প্রফুল্ল রায়, চন্দ্র কেশোর, মনোরঞ্জন রায়, দ্বিজেন রায়, আরতী রায়, যুগল রানী রায়, ললিত দাস, ভুবেন ঋষি, মহেশ চন্দ্র রায়, অমল রায়. দ্বিজেন দাস ও মনোজিত রায়গনের নালিসি ক্যাম্পাসে পরবর্তী নিদের্শ না হওয়া পর্যন্ত সমাবেশ করতে নিষেধাজ্ঞা দিলেও আদালতের ১৪৪ ধারা নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে বিবাদীগন গত বৃহস্পতিবার সমাবেশ করে। বাদী পক্ষ সমাবেশের সংবাদ পেয়ে ঘটনা স্থলে উপস্থিত হতে চাইলে বীরগঞ্জ থানার এসআই প্রান কৃষ্ণের বাধায় আইনকে শ্রদ্ধা রেখে ঘটনা স্থলে উপস্থিত না হওয়ায় কোন ধরনের অনাকাংক্ষিত ঘটনা ঘটেনি।
বীরগঞ্জ থানা পুলিশের এসআই প্রান কৃষ্ণ আদালতের প্রাপ্ত নোটিশ গত ২৬ ফেব্রূয়ারী উভয় পক্ষের প্রত্যেকের কাছে নিষেধাজ্ঞা পত্র প্রেরন করে শান্তি-শৃংঙ্খলা ভঙ্গ না করার নিদের্শে বলা হয়েছে নালিসি ক্যাম্পাসে পরবর্তী নিদের্শ না হওয়া পর্যন্ত সভা সমাবেস বন্ধ থাকবে, অন্যথায় আইনানুগ কঠোর ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে সতর্ক করা হলেও বিবাদীগন তা না মানায় এ ঘটনা সৃষ্ঠি হয়।