সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, রোহিঙ্গা নিয়ে রাজনীতি করা চলবে না। মানবিক সাহায্য নিয়ে রাজনীতি চলবে না।
বিপন্ন মানুষের সাথে রাজনীতির খেলা চলবে না। আমরা রোহিঙ্গ‍া নিয়ে রাজনীতি করিনি এবং কাউকে করতেও দেব না।

বুধবার সন্ধ্যায় কক্সবাজারের জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে ‘অনুপ্রবেশকারী মিয়ানমার নাগরিকদের মানবিক সহায়তা ও আইনশৃঙ্খলা সম্পর্কিত সমন্বয় সভা’য় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ হুঁশিয়ারি দেন।

দেশি-বিদেশি এনজিও প্রতিনিধিদের সমন্বয়ের মাধ্যমে কাজ করার আহ্বান জানিয়ে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্বে থাকা সেতুমন্ত্রী বলেন, রোহিঙ্গাদের আমরা আশ্রয় দিয়েছি। তাদের যা যা দরকার সবই আমরা দেব। এ পর্যন্ত একজন রোহিঙ্গাও অনাহারে, বিনা চিকিৎসায় মারা যায়নি। এটি বড় দৃষ্টান্ত।

ওবায়দুল কাদের বলেন, রোহিঙ্গাদের মধ্যে সবাই নিরাপদ নয়। এর মধ্যে আরসা, জঙ্গি ও সন্ত্রাসী থাকতে পারে। রোহিঙ্গারা ইয়াবা নিয়ে ঢুকছে। অস্ত্রও থাকতে পারে। রোহিঙ্গাদের স্রোতের ঢলে বিপথগামী মানুষও থাকতে পারে। এটি অসম্ভব নয়। এত রোহিঙ্গা নিয়ন্ত্রণ করা সহজ নয়। এ জন্য সরকারি বিভিন্ন দপ্তর, বিভাগ, প্রশাসনকে সচেতন থাকতে হবে।

জেলা প্রশাসক মো. আলী হোসেনের সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য দেন সংসদ সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমল, আশেক উল্লাহ রফিক, খুরশিদ আরা হক, পুলিশ সুপার ড. একেএম ইকবাল হোসেন, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সিরাজুল মোস্তফা, সেনাবাহিনীর লে. কর্নেল আকবর, কর্নেল আসাদ প্রমুখ।