ঢাকা, ১৩ ফাল্গুন (২৫ ফেব্রæয়ারি) :
মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি বলেছেন, সরকার বাল্যবিবাহের সংখ্যা শূন্যের কোটায় নামিয়ে আনতে বদ্ধপরিকর। এ লক্ষ্যে আইন প্রণয়নসহ নানাবিধ কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে সরকার। দারিদ্র্যতা, নিরাপত্তাহীনতা ও সামাজিক অসচেতনতার অভাবে বাল্যবিবাহ সংগঠিত হয়।
প্রতিমন্ত্রী আজ রাজধানীর সিরডাপ মিলয়াতনে বাংলাদেশ সরকার এবং ইউনিসেফ এর যৌথ আয়োজনে  শীর্ষক গবেষণা ফলাফলের মোড়ক উন্মোচনের সময় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় একথা বলেন।
মেহের আফরোজ বলেন, দরিদ্র পরিবারের ১৫-১৮ বছরের মেয়েদেরকে বৃত্তিমূলক প্রশিক্ষণ প্রদান এবং ভাতা প্রদানের কার্যক্রম হাতে নিয়েছে মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়। এর লক্ষ্য হল তাদেরকে অর্থনৈতিকভাবে সহযোগিতা করা এবং আয়বর্ধক ব্যাবসায় উদ্যোক্তা হিসেবে অংশ গ্রহণ করা। এই কার্যক্রম চললে বাল্যবিবাহের সংখ্যা অনেক কমে যাবে।
মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব লায়লা জেস্মিনের সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক সচিব নাছিমা বেগম এনডিসি, অতিরিক্ত সচিব মাহমুদা শারমিন বেনু, অর্থ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মোঃ আজিজুল আলম, ইউনিসেফ বাংলাদেশের প্রতিনিধি  এবং ড. আবুল হোসেন।