মো: আনোয়ার হোসেন:-মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি এমপি বলেছেন, আসন্ন বাজেটে মাতৃত্বকালীন ভাতা ৬০ শতাংশ বাড়ছে। পাশাপাশি বাড়ছে সুবিধা দেয়ার মেয়াদ। ৫শ’ টাকার পরিবর্তে নতুন অর্থবছরে সুবিধাপ্রাপ্ত মায়েরা ৮শ’ টাকা করে পাবেন। আর দুই বছরের পরিবর্তে এই সুবিধা দেয়া হবে তিনবছর। মায়েদের দারিদ্র্য বিমোচনে স্বপ্ন প্যাকেজ কার্যক্রমেরও সম্প্রসারণ করা হবে।

বিশ্ব মা দিবস উপলক্ষ্যে রবিবার (১৩ মে) সকালে রাজধানীর কুড়িলস্থ যুগান্তর অফিসের সভা কক্ষ্যে ‘বাংলাদেশে মা দিবসের ১৩ বছর: টেকসই উন্নয়নে মায়ের স্বপ্ন’ শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। বেসরকারী সংস্থা ডরপ ও দৈনিক যুগান্তর যৌথভাবে আলোচনা সভার আয়োজন করে।

মন্ত্রী আরও বলেন, আমাদের মোট জনগোষ্ঠীর অর্ধেকই নারী। এই অর্ধেক জনগোষ্ঠীকে উন্নয়নের মূলধারায় নিয়ে আসতে না পারলে জাতীয় উন্নতি-প্রগতি হবে না। এজন্য মায়ের যত্ন নিতে হবে। গর্ভকালীন সেবা-পুষ্টি নিশ্চিত করতে হবে।

যুগান্তরের সহকারী সম্পাদক মাহবুব কামালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপসি’ত ছিলেন জাতীয় প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ফরিদা ইয়াসমিন। অনুষ্ঠানে মূল বক্তব্য উপস্থাপন করেন ডরপ’র প্রতিষ্ঠাতা ও গুসি আন্তর্জাতিক শান্তি পুরস্কার বিজয়ী এএইচএম নোমান।

কবি ও লেখক আফরোজা সোমার পরিচালনায় আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন ডরপ’র চেয়ারম্যান মোঃ আজহার আলী তালুকদার, যুগান্তরের ফিচার সম্পাদক রফিকুল ইসলাম দাদু ভাই, পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরের পরিচালক ডা. মোহাম্মদ শরীফ, মনেবিজ্ঞানী ও লেখক ড. আনোয়ারা সৈয়দ হক, বাংলা একাডেমির পরিচালক শাহিদা খাতুন, কবি রোকেয়া ইসলাম, গণমাধ্যম কর্মী ও কবি তাহমিনা শিল্পী, পুষ্টিবিদ আখতারুন নাহার আলো, ভিকারুন নিসা নূন স্কুল ও কলেজের অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক নাসরীন নঈম, বাংলাদেশ বিমানবাহিনীর উইং কমান্ডার মনজিল রিজওয়ান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক সায়মা হক বিদিশা, নারীপক্ষের সামিয়া আফরীন, বাংলাদেশ নারী সাংবাদিক কেন্দ্রের সাধারণ সম্পাদক পারভীন সুলতানা ঝুমা, কণ্যশিশু এডভোকেসি ফোরামের নাসিমা আক্তার জলি, লেখক দিলারা মেজবাহ, কালীগঞ্জ মা সংসদের ডেপুটি স্পিকার স্বপ্ন মা আখি আক্তার, স্বপ্ন মা নার্গিস আক্তার, মাতৃত্বকালীন ভাতাপ্রাপ্ত মা ফিরোজা প্রমূখ।

মূল বক্তব্যে ডরপ’র প্রতিষ্ঠাতা এএইচএম নোমান বলেন, আমরা বিশ্ব মা দিবসে- দেশীয় চিন্তায় ২০০৫ সালে মাতৃত্বকালীন ভাতা প্রদানের মাধ্যমে মা দিবস উদযাপন শুরু করি। যা এখন সরকার সারাদেশে বাস্তবায়ন করছে। ডরপ উদ্ভাবিত ‘স্বপ্ন প্যাকেজ’ কার্যক্রম উন্নয়ন মডেলটি সরকার ইতমধ্যে পাইলট আকারে দেশের সাতটি বিভাগের ১০টি উপজেলায় বাস্তবায়ন করেছে। পাবলিক পূয়র প্রাইভেট পার্টনারশীপের (পিপিপিপি) আওতায় মায়েদর মাঝে স্বপ্ন প্যাকেজের সরঞ্জাম হস্তান্তর অনন্য উদাহরন। জনাব নোমান, দারিদ্র বিমোচন তথা- এসডিজি একের ভেতরে সতের লক্ষ অর্জনে আগামী ২০১৮-১৯ অর্থ বছরের বাজেটে ‘মাতৃত্বকালীন ভাতা’র পরিমান ৫শ টাকা থেকে ১হাজার টাকায় উন্নিত করার দাবী করেন। একই সাথে স্বপ্ন প্যাকেজ কর্মসূচী বাস্তবায়নে ‘এক মা, ১লক্ষ টাকা’ হারে, একশত জন করে, ১০০টি উপজেলায় মোট ১০০কেটি টাকা বাজেট বরাদ্দ রাখার জন্য সরকারের প্রতি দাবী জানান। এ ছাড়া তিনি জাতীয় দারিদ্র্য বিমোচন কর্তৃপক্ষ প্রতিষ্ঠারও দাবী জানান।