সুদানের এ্যাগ্রিকালচারাল ব্যাংক এর জেনারেল ম্যানেজারের নেতৃত্বে ব্যবসায়িক প্রতিনিধি দলের সদস্যবৃন্দ আজ বস্ত্র ও পাট মন্ত্রী মুহা: ইমাজ উদ্দিন প্রামাণিক এমপি, এর সাথে সচিবালয়ে তাঁর অফিস কক্ষে সৌজন্য সাক্ষাত করেন ।

এ সময় বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ে সচিব জনাব ফয়জুর রহমান চৌধুরী,বিজেএমসি’র চেয়ারম্যান ড. মাহমুদুল হাসান,বিজেএমসি’র উপদেষ্টা সিরাজুল ইসলামসহ মন্ত্রণালয়ের উর্দ্ধতন কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

সাক্ষাৎকালে দু’দেশের বস্ত্র ও পাট শিল্পের দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য ও এর অগ্রগতি নিয়ে আলোচনা হয়।

সুদানের প্রতিনিধিগণ বলেন,‘বাংলাদেশ ও সুদানের বন্ধুত্বের সম্পর্ক শুধু অর্থনৈতিকই নয় ঐতিহাসিক ও বটে । সুদান আন্তরিকভাবে বিশ্বাস করে বাংলাদেশ তাদের বন্ধুপ্রতীম দেশ । দু’দেশের নিয়োমিত বাণিজ্য বৃদ্ধির মাধ্যমে এ সম্পর্ক আরো জোরদার হচ্ছে । সেজন্য তারা বস্ত্র ও পাটখাতে বাংলাদেশের সাথে ব্যবসায় বাণিজ্য সম্প্রসারণ ঘটাতে চায় ।’
মুহা: ইমাজ উদ্দিন প্রামাণিক বলেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা বস্ত্র ও পাটশিল্পের প্রতি খুবই আন্তরিক। তারঁ আন্তরিকতায় ও গতিশীল নেতৃত্বে আজ বিশ্ববাজারে বস্ত্রখাতে ‘বাংলাদেশ’একটি ব্যান্ডে রূপান্তর হয়েছে । এ খাতকে আরো প্রতিযোগিতা সক্ষম ও আধুনিক করতে বর্তমান সরকার নানামুখী পদক্ষেপ হাতে নিয়েছে । এছাড়াও পাটের অভ্যন্তরিণ ব্যবহার বৃদ্ধি ও আর্ন্তজাতিক বাজারে পাটের চাহিদা ব্যাপক বৃদ্ধি পাওয়াতে সরকারি পাটকল সমূহ দ্রুতই লাভজনক প্রতিষ্ঠানে পরিনত হবে । এছাড়াও সরকারি পাটকলের পুরাতন মেশিনের পরিবর্তে আধুনিক মেশিন সংযুক্তকরণে কাজ দ্রুত করা হবে।’

প্রতিনিধি দলের সদস্য হিসাবে উপস্থিত ছিলেন এ্যাগ্রিকালচারাল ব্যাংক অব সুদানের জেনারেল ম্যানেজার মি. সালেহউদ্দিন হাসান আহমেদ গামা, গ্লোডেন ফাইবার লি. এর এমডি মোস্তাক হুসাইন, সৈয়দ মোঃ নাঈম সত্ত্বাধীকার গ্লোডেন ফাইবার লি. সহ অন্যান্য সদস্যবৃন্দ ।