ফরিদপুরে সংসদ উপনেতা সৈয়দা সাজেদা চৌধুরীর গাড়িবহরে হামলার ঘটনা ঘটেছে। এ সময় দুটি গাড়ি ভাংচুর করা হয়।
এতে আহত হয়েছেন নগরকান্দা থানার ওসিসহ বেশ কয়েকজন। ঢাকা থেকে নিজ নির্বাচনী এলাকা নগরকান্দায় যাওয়ার পথে দুপুর আড়াইটার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, দুপুর আড়াইটার দিকে সংসদ উপনেতার গাড়িবহরটি তালমা এলাকায় পৌঁছালে আওয়ামী লীগের বিক্ষুব্ধ একটি অংশ সংসদ উপনেতার গাড়ি থামানোর চেষ্টা করে। এসময় গাড়িবহরে থাকা আওয়ামী লীগ নেতাদের সাথে বিক্ষুব্ধদের কথা কাটাকাটি হয়। এতে পুলিশ ও সংসদ উপনেতার নিরাপত্তায় নিয়োজিত থাকা নিরাপত্তারক্ষীরা বেশ কয়েক রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুড়ে।

এসময় বিক্ষুব্ধ নেতা-কর্মীরা গাড়িবহরে হামলা চালায়। হামলায় সংসদ উপনেতার গাড়ি কিছুটা ক্ষতিগ্রস্থ হলেও পুলিশের তিনটি ও বহরে থাকা আরো দুটি গাড়ি ভাংচুর করা হয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে দ্রুত সাজেদা চৌধুরীকে নিরাপদে নিজ বাড়ি সালথা উপজেলার গট্রি ইউনিয়নের রসুলপুর গ্রামের হামিদ মঞ্জিলে পৌঁছে দেন।

এদিকে সংসদ উপনেতার গাড়ি বহরে হামলার ঘটনার পর পরই হাজার হাজার নেতা-কর্মী ভীড় জমান তার বাড়িতে।
এসময় তারা সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার চেয়ে স্লোগান দেন। হামলার ঘটনার পর পরই জেলা প্রশাসক উম্মে সালমা তানজিয়া, পুলিশ সুপার সুভাষ চন্দ্র সাহাসহ প্রশাসনের উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষ সংসদ উপনেতার বাড়িতে ছুটে যান।

অন্যদিকে গাড়িবহরে হামলায় নগরকান্দা থানার ওসি এএফএম নাসিম আহত হয়েছে। তাকে নগরকান্দা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। গাড়িবহরে থাকা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের অভিযোগ, তালমা ইউনিয়নের একটি সন্ত্রাসী বাহিনী সাজেদা চৌধুরীর গাড়িবহরে হামলা চালিয়েছে। তারা এ ঘটনার সাথে জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবি জানিয়েছেন।