প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও সুইজারল্যান্ডের প্রেসিডেন্ট এলেন বারসের মধ্যে একান্ত বৈঠকের পর আজ বিকেলে দু’দেশের মধ্যে আনুষ্ঠানিক আলোচনা শুরু হয়েছে।
প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে এই বৈঠক চলছে এবং এতে দু’দেশের সংশ্লিষ্ট মন্ত্রী ও কর্মকর্তারা উপস্থিত রয়েছেন বলে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের একজন মুখপাত্র বাসসকে একথা জানান।
প্রধানমন্ত্রী এর আগে আজ দুপুর ২টা ৫৫ মিনিটে তাঁর কার্যালয়ের টাইগার গেটে ফুলের তোড়া দিয়ে সুইজারল্যান্ডের প্রেসিডেন্টকে অভ্যর্থনা জানান।
বারসে রোহিঙ্গা সংকটে বাংলাদেশের সঙ্গে সংহতি প্রকাশ করতে ৪ দিনের সরকারি সফরে রোববার ঢাকা পৌঁছেছেন।
সুইজারল্যান্ড ১৯৭২ সালের ১৩ মার্চ বাংলাদেশকে স্বীকৃতি দেয়। ঘনিষ্ট দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক স্থাপন এই সফরের লক্ষ্য বলে সুইস দূতাবাসের এক বিবৃতিতে জানানো হয়।
রোববার সন্ধ্যায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলীর সঙ্গে বৈঠকের মধ্যদিয়ে সুইস প্রেসিডেন্টের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়।
এর আগে সুইস প্রেসিডেন্ট আজ সাভারে জাতীয় স্মৃতিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান।
এরপর তিনি ধানমন্ডিতে বঙ্গবন্ধু স্মৃতি যাদুঘর পরিদর্শন করেন এবং জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালির প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।
সুইস প্রেসিডেন্ট আজ সন্ধ্যা ৭টায় বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট আবদুল হামিদের সঙ্গে আনুষ্ঠানিক বৈঠক করবেন।
বারসে মঙ্গলবার বক্সবাজার জেলা কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করবেন।
সুইস প্রেসিডেন্ট সুশীল সমাজ ও বাংলাদেশে কর্মরত সুইজারল্যান্ডের ব্যবসায়ীদের সঙ্গে বৈঠক করবেন। তিনি ঢাকা আর্ট সামিটও পরিদর্শন করবেন। এই সামিটের পার্টনার হচ্ছে সুইজাল্যান্ডের আর্ট কাউন্সিল ‘প্রো হেলভেসিয়া’।
বারসে বুধবার তাঁর সফর শেষে দেশে ফিরবেন।