প্রতিবেশী আগে, কিন্তু বাংলাদেশ সবার আগে’, এমন মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ সফররত ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ।

সোমবার (২৩ অক্টোবর) ঢাকার বারিধারায় ভারতীয় হাইকমিশনের চ্যান্সারি কমপ্লেক্স উদ্বোধনসহ ১৫টি উন্নয়ন প্রকল্প উদ্বোধন শেষে এ মন্তব্য করেন তিনি।

এতে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী, বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার হর্ষবর্ধন শ্রিংলা, স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম, বন ও পরিবেশ মন্ত্রী আনোয়ার হোসেন মঞ্জু, প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম, ভারতের পররাষ্ট্র সচিব এস জয়শঙ্কর, বাংলাদেশের পররাষ্ট্র সচিব এম শহিদুল হক প্রমুখ।

বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলীকে উদ্দেশ্য করে সুষমা স্বরাজ বলেন, ‘তিনি আমাকে দিদি বলেন, আমি তাকে দাদা বলি। সম্পর্কটা এখন পারিবারিক হয়েছে। সম্পর্ক যখন পারিবারিক ও সাংস্কৃতিক হয় তখন সেটা ভিন্ন মাত্রা পায়’।

‘পররাষ্ট্রমন্ত্রী হওয়ার পর আমার কাছে প্রস্তাব আসে কোন দেশে সবার আগে সফর যেতে চান। আমি বলি, সবার আগে প্রতিবেশী বাংলাদেশে সফরে যাবো’।

উদ্বোধন হওয়া প্রকল্পগুলোর বিষয়ে সুষমা স্বরাজ বলেন, এক বছরের মধ্যে প্রকল্পগুলোর কাজ শেষ হবে। ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তত্ত্বাবধানে যা ‘সুপারসনিক’ গতিতে সম্পন্ন হবে।

এর আগে সুষমা স্বরাজ ঢাকা, চট্টগ্রাম ও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য কম্পিউটার, ল্যাপটপ, ফটোকপি মেশিনসহ বিভিন্ন শিক্ষা সামগ্রী বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর কর্তৃপক্ষের হাতে তুলে দেন। সেখানে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর ভিসিসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।