মোঃ ইউনুস আলী, লালমনিরহাট প্রতিনিধি:

লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলায় দুটি চোরাই মোটরসাইকেল ও এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে এক ইউপি সদস্যসহ তিনজন আটক করে পুলিশ। জিজ্ঞাসাবাদে জড়িত থাকার প্রমাণ না পাওয়ায় ইউপি সদস্য রাসেলকে ছেড়ে দেয়া হয়। বাকি দুই আসামী চোরাই মোটরসাইকেলসহ জেলহাজতে প্রেরণ করেছে পুলিশ।

গত বৃহস্পতিবার (১৯ অক্টোবর) রাতে ঐ উপজেলার উপারমারা ও বুড়িমারী হাই স্কুল এলাকা থেকে চোরাই মোটরসাইকেল দুটি উদ্ধার করা হয়।

ঐ ইউপি সদস্য রাশেল বুড়িমারী ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) ৩নং ওয়ার্ডের সদস্য।

পুলিশ সুত্রে জানা গেছে, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পাটগ্রাম উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালায় পুলিশের একটি দল। অভিযানে ঐ উপজেলার উপারমারা ও বুড়িমারী হাইস্কুল এলাকা থেকে একটি পালসার ১৫০ সিসি ও টিভিএস মেট্রো ১০০ সিসি ব্যান্ডের দুইটি মোটর সাইকেল উদ্ধার করা হয়।
সে সময় ইউপি সদস্য রাসেল, বুড়িমারী আমবাড়ী এলাকার কফর উদ্দিনে পুত্র শরিফুল ইসলাম ও বুড়িমারী ভাঙ্গাপাড়া এলাকার আব্দুল গনির পুত্র আল আমিনকে আটক করে থানায় নিয়ে আসা হয়। পরে ইউপি সদস্য রাসেলকে জিজ্ঞাসাবাদে ছেড়ে দেয় পুলিশ।

পাটগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফিরোজ কবির জানান, জিজ্ঞাসাবাদ শেষে জড়িত থাকার প্রমাণ না পাওয়ায় ইউপি সদস্য রাসেলকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। অপর দুইজনকে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। এ ঘটনায় পাটগ্রাম থানায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।