পাঁচ বছরে ৫০০ নতুন উদ্যোক্তা তৈরির অঙ্গিকার ড্যাফোডিলের মোঃইমরান স্টাফ রিপোর্টার: দেশের আর্থসামাজিক উন্নয়নে, বেকার সমস্যা সমাধানে এবং নতুন নতুন কর্মসংস্হান তৈরির লক্ষ্যে প্রচুর উদ্যোক্তা তৈরির বিকল্প নেই। এ বিষয়টিকে মাথায় রেখে নতুন উদ্যোক্তা তৈরির জন্য ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি নতুন বিভাগ চালু করা থেকে শুরু করে উদ্যোক্তা উন্নয়নে নানাবিধ উদ্যোগ গ্রহন করে যাচ্ছে। তারই ধারাবাহিকতায় ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ” এন্ট্রারপ্রেনিউরশীপ” বিভাগ ‘Are You the Next Startup’ শিরোনামে গত ১৮ ডিসেম্বর ২০১৭ তারিখে জাতীয় প্রেসক্লাবে সংবাদ সন্মেলনের মাধ্যমে এ কর্মসূচীর আওতায় আগামী পাঁচ বছরে ” ৫০০ নতুন উদ্যোক্তা তৈরি ” এর প্রকল্প ঘোষণা করে। এ প্রকল্পের আওতায় সারা দেশ থেকে বাছাই করা যোগ্য এবং উদ্যমী তরুণ-তরুণীদের পূনাঙ্গ বৃত্তিসহ সফল উদ্যোক্তা তৈরি করা পর্যন্ত প্রয়োজনীয় নানাবিধ সহযোগিতা প্রদান করা হচ্ছে।আজ ১০ আগস্ট ২০১৭ ইং জাতীয় প্রেস ক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে আয়োজিত এক সংবাদ সন্মেলনে এ কর্মসূচীর তৃতীয় পর্বের বিস্তারিত তুলে ধরা হয়। ৫০০ ( এর মধ্যে ৩০% মহিলা) নতুন সফল উদ্যোক্তা সৃষ্টির বিভিন্ন ধাপ ও প্রক্রিয়াসমূহ সাংবাদিকদের মাধ্যমে গণমাধ্যমে তুলে ধরার লক্ষ্যে সংবাদ সন্মেলনে এ কর্মসূচীর বিস্তারিত তুলে ধরে বক্তব্য রাখেন ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ট্রাষ্টিবোর্ডের চেয়ারম্যান মো. সবুর খান, পরিচালক (স্টুডেন্ট এফেয়ার্স) সৈয়দ মিজানুর রহমান ও এন্ট্রাপ্রেনিউরশীপ বিভাগের প্রধান সৈয়দ মারুফ রেজা। সংবাদ সন্মেলনে জানানো হয়, এ প্রকল্পের মূল লক্ষ্য হচ্ছে, যুবসমাজকে উদ্যোক্তা তৈরির মাধ্যমে মূলধারার সাথে সমন্বিত করে শিক্ষিত বেকারদের কর্মসংস্থানের মাধ্যমে আমাদের দেশের অর্থনীতিকে গতিশীল করা। ‘Are You the Next Startup?” হচ্ছে ড্যাফোডিলের ” এন্ট্রাপ্রেনিউরশীপ” বিভাগের উদ্যোগে আয়োজিত বাংলাদেশের সম্ভাবনায় তরুন Startup ও উদ্যেক্তাদের খুজে বের করার জাতীয় মেধা অন্বেষণের উদ্যোগ। এ উদ্যোগের মাধ্যমে প্রতিটি বিজয়ীর মধ্যে লুকিয়ে থাকা উদ্যোক্তা হওয়ার স্বপ্ন বা ব্যবসায়িক ভাবনাসমূহকে উদ্ভাবন করে পরিকল্পিতভাবে সংঘটিত ও সঠিক গন্তব্যে পরিচালিত করবে।