নেপালের রাজধানী কাঠমন্ডুতে ১৩ ও ১৪ অক্টোবর দুই দিনব্যাপী অনুষ্ঠিত হলো প্রথম জুরখানে কুস্তি পালোয়ানি চ্যাম্পিয়নশিপ-২০১৭। সাফ রিজিওনাল এ চ্যাম্পিয়নশিপে বাংলাদেশ দল ২টি স্বর্ণ সহ মোট ৯টি পদক জিতে রানার্স আপ হওয়ার গৌরব অর্জন করে। প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হয়েছে আফগানিস্তান, তৃতীয় হয়েছে স্বাগতিক নেপাল এবং ৪র্থ হয়েছে শ্রীলঙ্কা। প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশ দলের শরৎ চন্দ্র ব্যক্তিগত কাবাডে ইভেন্টে আট দেশের খেলোয়াড়কে হারিয়ে স্বর্ণ পদক জয় করেন। প্রথম হওয়ার হন্য তিনি প্রাইজমানি পান ১০০ডলার। ব্যক্তিগত ইভেন্টে মাইনাস ৭০ কেজি ওজন শ্রেণীতে পাচঁ দেশের খেলোয়াড়কে হারিয়ে স্বর্ণ জয় করেন সিরাজুল ইসলাম। তিনিও প্রাইজমানি পান ১০০ডলার। এদিকে, দলীয় ডিসপ্লে ইভেন্টে আফগানের কাছে পরাজিত হওয়ার ফলে রৌপ্য পায় বাংলাদেশ। দলীয় ভাবে ২০০ডলার প্রাইজমানি পায় বাংলার কুস্তিগীররা। কুস্তি ইভেন্টে মাইনাস ৬০ কেজি ওজন শ্রেণীতে ভারতকে হারিয়ে এবং আফগানের কাছে হেরে রৌপ্য পদক পায় রঞ্জু আহমেদ। কুস্তিতে মাইনাস ৯০ কেজি ওজন শ্রেণীতে ব্রোঞ্জ পদক পান মিজানুর রহমান। জুরখানে ডিসিপ্লিনে বাংলাদেশের সিরাজুল ইসলাম ও রঞ্জু আহমেদ দুজনই পান রৌপ্য পদক। এছাড়া, হেভী মিলবাজি ইভেন্টে ব্রোঞ্জ পদক পায় মগনু মারমা। মিলবাজি ইভেন্টে ব্রোঞ্জ পান দিপু চন্দ্র। ট্রফি ও মেডেলের পাশাপাশি চ্যাম্পিয়ন দল প্রাইজমানি হিসেবে পায় ৪০০ডলার, রানার্স আপ ২০০ডলার এবং তৃতীয় স্থান অধিকারী পায় ১০০ডলার। উল্লেখ্য প্রথম জুরখানে কুস্তি পালোয়ানি চ্যাম্পিয়নশিপে বাংলাদেশ সহ স্বাগতিক নেপাল, পাকিস্তান, ভুটান, শ্রীলঙ্কা, আফগানিস্থান, মালদ্বীপ ও ভারত প্রতিযোগিতায় অংশ গ্রহন করে। চ্যাম্পিয়নশিপে কোচসহ মোট ৯সদস্যের বাংলাদেশ দল অংশ গ্রহন করেছিল।