মোজাম্মেল হোসেন কামাল নোয়াখালী প্রতিনিধি:
নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে শনিবার দুপুরে চৌমুহনী পাবলিক হলরুমে সাংবাদিক সম্মেলনে জিরতলী ইউপির নির্বাচনের পূর্বেই তার উপর হামলা করার অভিযোগ করেছে বিএনপি প্রার্থী এএইচএম সেলিম। এ সময় তিনি পিস্তল উঁচিয়ে তাকে হত্যা করার চেষ্টা করেছে বলেও জানান।
ধানের শীষ প্রতিক নিয়ে নির্বাচনের মাঠে থাকা প্রার্থী এএইচএম সেলিম বলেন, নৌকা প্রতিকের প্রার্থী রফিকুল ইসলাম মিলনের লোকজন রাতে নির্বাচনী কাজে বাধা দিয়ে ও হামলা করে আহত করেছে। তারা আমার কমপক্ষে ৬ জন কর্মীকে পিটিয়ে আহত করে বেশ কয়েকটি দোকান ভাংচুর করেছে। তিনি আরো অভিযোগ করে বলেন নির্বাচনে ধানের শিষের এজেন্টদের বিভিন্নভাবে হুমকি ধমকি দিচ্ছে। তিনি নির্বাচন কমিশনকে এ বিষয়ে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার অনুরোধ করেন।
এ সময় ইউনিয়ন বিএনপির নেতা কামালা হোাসেন, মহিউদ্দিন মহিন, ইন্জিনিয়ার তারেকসহ নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।
এছাড়া সেনবাগ উপজেলার বীজবাগ ইউনিয়নের নলদিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় স্থগিত কেন্দ্র রোববার ভোট গ্রহন অনুষ্ঠিত হবে।
জেলা নিবার্চন অফিসার শুধুীর শংকর জানান নিবার্চন সুষ্ঠ ও সুন্দর করার জন্য তিন স্তর নিরাপত্তা নেওয়া হয়েছে।