আব্দুর রহমান(জসিম), চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি  :
চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলায় কর্মরত বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলকট্রনিক্স মিডিয়ায় কর্মরত সাংবাদিক ও উপজেলা প্রসক্লাবের সদস্যদের সাথে মতবিনিময় সভা করলেন দামুড়হুদা মডেল থানার নবাগত অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আকরাম হোসেন। শনিবার রাত সাড় ৮ টায় দামুড়হুদা বাস ষ্ট্যান্ড সংলগ্ন সিয়াম সুপার মার্কেটের ২য় তলায় অবস্থিত উপজেলা প্রেসক্লাবের অস্থায়ী কার্যালয়ে এ মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।
উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি এম, নূরুন্নবীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, দামুড়হুদা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আকরাম হোসেন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বিশিষ্ঠ আ.লীগ নেতা চুয়াডাঙ্গা জর্জ কোর্টের সিনিয়র আইনজীবি এড. আব্দুল কুদ্দুস, দামুড়হুদা সদর ইউনিয়নর সাবেক চেয়ারম্যান রফিকুল হাসান তনু।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে ওসি আকরাম হোসেন এলাকার আইন শৃংখলা উন্নয়নে সাংবাদিকদের সার্বিক সহযাগীতা কামনা করে বলেন, আমি যতদিন এই থানায় কর্মরত আছি আপনাদের ও এলাবাসীর সহযাগীতায় অত্রএলাকা থেকে মাদক, চাঁদাবাজী, সন্ত্রাসী ও বাল্যবিয়ে কর্মকান্ড উচ্ছেদ অভিযান অব্যাহত থাকবে। মাদক, চাঁদাবাজী, বাল্যবিয়ে, সন্ত্রাসী ও  মূলক কোন কর্মকান্ডের সাথে আপস করবো না। সাংবাদিক বা কোন রাজনৈতিক দলর যতবড় নেতাকর্মীই হোক না কেন অপরাধ করে কেউ পার পাবেনা। সর্বশেষ তিনি দামুড়হুদা মডেল থানাকে দালাল মুক্ত থানা হিসেবে ঘোষনা দিয়ে বলেন, হাত গোনা দু’ এক জন সাংবাদিকসহ কয়েকজনকে থানার আশে পাশে প্রায় সময়ই ঘুর ঘুর করতে দেখছি। এই থানায় আমার কর্মকাল মাত্র ৫ দিন। এই ৫ দিন আমি এসব ব্যক্তিদরকে ঘুরতে দেখছি। কালকের পর থেকে এদেরকে দেখলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিবো। এলাকাবাসীর উদ্দ্যেশে তিনি বলেন, নিজের সমস্যার জন্য নিজে আসুন। আপনাদের জন্যে আমার দরজা সবসময় খোলা।
তিনি আরও উল্লেখ করে বলেন, দর্শনার বাইরের বহিরাগত যে কাউকে চুয়াডাঙ্গা-দর্শনা সড়কসহ দর্শনা ও এর আশ পাশের এলাকায় পেলে তাকে পুলিশি জেরার মুখে পড়তে হবে। সঠিক জবাব দিতে না পারলে তাকে আটক করে আইনের আওতায় আনা হবে। দীর্ঘ দিন থেকে চলে আসা দর্শনা, ঈশ্বরচদ্রপুর, তমালতলা ও আকুন্দবাড়িয়া এলাকার মাদক ঘাটি উচ্ছেদ করার জন্যে যা কিছু প্রয়োজন তা করা হবে। উল্লেখিত এলাকাগুলার মধ্যে তমালতলা ও আকুন্দবাড়িয়া যেহেতু সদর থানার এলাকা, সেহেতু আমি এসপি স্যারের সাথে কথা বলে প্রয়াজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের ব্যবস্থা করবো।
উপজলা প্রস ক্লাবের সহসভাপতি হাফিজুর রহমান কাজলের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শামসুজ্জাহা পলাশ, সাংগঠনিক সম্পাদক আলী আজগার সোনা,তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক আব্দুর রহমান(জসিম), অর্থ সম্পাদক মিরাজুল ইসলাম, প্রচার সম্পাদক জুবায়ের বিন শরীফ, সদস্য মোহনা টিভির জেলা প্রতিনিধি তুহিন রেজা, সুজন, আব্দুর রহমান,রুবেল, আহাদ আলি সহ ২৮ জন সাংবাদিক উপস্থিত ছিলেন। ।