মোঃ ইউনুস আলী, লালমনিরহাট প্রতিনিধি:

৪দিনের টানা ভারি বর্ষণে ভারত থেকে প্রচণ্ড গতিতে পানি আসায় তিস্তা ব্যারাজ হুমকির মুখে পড়েছে। তিস্তা ব্যারাজের সব গেট খুলে দিয়েও পানির গতি নিয়ন্ত্রণ করা যাচ্ছে না। ইতিমধ্যে ব্যারেজ এলাকার ফ্লাট বাইপাশের উপর পানি উঠেছে। ফলে ব্যারাজ রক্ষার্থে যে কোনো মুহূর্তে ফ্লাট বাইপাশ কেটে দেয়া হতে পারে।

ফলে ফ্লাট বাইপাশ এলাকার লোকজনদের নিরাপদ স্থানে সরে যেতে লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় অবস্থিত দেশের বৃহত্তম সেচ প্রকল্প তিস্তা ব্যারাজ এলাকায় রেড এলার্ট জারি করেছে পানি উন্নয়ন বোর্ড কর্তৃপক্ষ।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন দোয়ানী পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মোস্তাফিজুর রহমান।

এদিকে প্রবল পানির স্রোতে তিস্তা পাড়ের ধুবনি এলাকার গিয়াস মোল্লার বাড়ির পার্শ্বে কয়েকটি বাড়ি নদীতে ভেসে যাওয়ার খবর পাওয়া গেছে। পানির স্রোতে রাস্তাঘাট তলিয়ে যাচ্ছে। ফলে আশপাশ এলাকার লোকজনের মাঝে চরম আতংক বিরাজ করছে।

প্রবল বন্যার আর ভারি বর্ষণের ফলে তিস্তা পাড়ে লোকজনের মাঝে চরম আতঙ্ক বিরাজ করছে। ফ্লাট বাইপাশ কেটে দেয়া হলে তিস্তার পানি লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা শহরে প্রবেশ করবে। এতে বন্যা পরিস্থিতি আরো ভয়াবহ হয়ে পড়বে।

লালমনিরহাট জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শাফিউল আরিফ জানান, বন্যা পরিস্থিতি মোকাবেলায় আমরা সর্বোচ্চ চেষ্টা করে যাচ্ছে। বন্যার্তদের নিরাপদ স্থানে সরে আনাসহ তাদের মাঝে শুকনা খাবার বিতরণ চলছে।