ঢাকা: রোববার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৭
বাংলাদেশ টেলিভিশন ও বাংলাদেশ বেতারের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে তথ্যমন্ত্রীর কাছে ১১ দফা প্রস্তাবনা ও দাবি পেশ করেছেন বাংলাদেশ টেলিভিশন-বেতার শিল্পী সংস্থা।
রোববার অপরাহ্নে বাংলাদেশ সচিবালয়ে তথ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে  তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু’র সাথে মতবিনিময়কালে বাংলাদেশ টেলিভিশন ও বেতারের তালিকাভূক্ত শিল্পীদের এ সংগঠনের পক্ষে সংস্থার সভাপতি ড. এনামুল হক এবং সাধারণ সম্পাদক সাইফুল আজম বাশার প্রস্তাবনা ও দাবিসম্বলিত পত্র হস্তান্তর করেন। তথ্য মন্ত্রণালয়ের যুগ্মসচিব (সম্প্রচার) মোঃ মুহিবুল হোসেইন সভায় উপস্থিত ছিলেন।
শিল্পীদের পক্ষে সাইফুল আজম বাশার এসময় বাংলাদেশ টেলিভিশনে প্রচলিত নীতিমালা মেনে চলা একই ধরনের ও একই দৈর্ঘ্যরে অনুষ্ঠানে ভিন্ন বাজেট না দেয়া, তালিকাভূক্ত শিল্পীদের বঞ্চিত না করা, অনুষ্ঠান পুণপ্রচারে সুবিবেচনা শিল্পীসম্মানী প্রদানে কূটকৌশলে সম্মানী কম না দেয়া, সীমিত সংখ্যকের বদলে আরো নাট্যকারদের সুযোগ দেয়া। সুরুকারসহ নাট্যকার ও অন্যান্য সৃষ্টিকর্মেরও রয়ালটি দেয়া, বেতারের শিল্পীসম্মানী বৃদ্ধি, বেসরকারি চ্যানেলগুলোর জন্য নীতিমালা যুগোপযোগী করা ও বাংলাদেশ বেতারে বিশেষ শ্রেণীর নাট্যশিল্পীদের অবমূল্যায়নের প্রতিকারের প্রস্তাব তুলে ধরেন।
তথ্যমন্ত্রী এসকল বিষয় তুলে ধরার জন্য সংস্থার প্রতি ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, মন্ত্রণালয়, বেতার, টেলিভিশন ও শিল্পীসংস্থার প্রতিনিধিদের নিয়ে একটি কমিটির মাধ্যমে প্রস্তাবনা ও দাবিগুলো দ্রুততম সময়ে নিরসনের জন্য কাজ করা হবে।
প্রথিতযশা শিল্পীদের মধ্যে শুভ্র দেব, এসডি রুবেল, সাজেদ আকবর, ইন্দ্রমোহন রাজবংশী, ড্যানি সিডাক, সুজিত মোস্তফা, রুমানা ইসলাম, অনিমা মুক্তি গমেজ, স্বপ্ন সিদ্দিকী, ড. শাহাদাত হোসেন নিপু প্রমূখ সভায় অংশ নেন।