দেশের জাতীয় ঐতিহ্যের প্রতীক ঢাকা বিশ^বিদ্যালয় এর কলা ভবন চত্ত্বর সময়ে বিবর্তনে এর সংষ্কার প্রয়োজনীয় হয়ে পড়ে। বিশ^বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ তাই ঐতিহাসিক এই প্রাঙ্গনের সংষ্কারের উদ্যোগ নেয়। ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়ে একাত্তরের মহান মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের স্মরণে নির্মিত স্মৃতিফলক এবং কলাভবনসহ এর আশপাশের গুরুত্বপূর্ণ সব স্থাপনার সৌন্দর্যবর্ধনে অনুদান দেয় এসিআই লিমিটেড। কলা ভবন চত্ত্বরে একাত্তরের মহান মুক্তিযুদ্ধে বিশ^বিদ্যালয়ের শহীদদের স্মরণে নির্মিত হয়েছে নতুন স্মৃতিফলক। এই ফলক তৈরীর মাধ্যমে বিশ^বিদ্যালয়ের শহীদদের স্মৃতিকে স্মরণীয় করে রাখার চেষ্টা করা হয়েছে। ২৮ নভেম্বর মঙ্গলবার বিকেলে স্মৃতিফলক ও কলাভবন চত্ত্বরের সৌন্দর্য বর্ধন কাজের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন ঢাকা বিশ^বিদ্যালয় এর উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ আখতারুজ্জামান। এই সময় দেয়া বক্তব্যে তিনি বলেন, ‘অনুদানের অর্থ দিয়ে আমরা শহীদ স্মৃতি ফলক নির্মাণসহ কলা ভবনের সামনের জায়গা, বটতলা, অপরাজেয় বাংলা- এই জায়গাগুলো সংস্কার, আধুনিকীকরণ, সুসজ্জিতকরণ এবং সৌন্দর্যবর্ধণের কাজ করেছি। এসিআই লিমিটেড আমাদের বিজ্ঞান অনুষদ, জীব বিজ্ঞান অনুষদ এবং বিজনেস ষ্টাডিজ অনুষদসহ বিভিন্ন বিভাগে প্রতিনিয়ত সহযোগিতা ও অর্থায়ন করে চলেছে।’ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজনেস ষ্টাডিজ অনুষদের ডীন প্রফেসর শিবলী রুবাইয়াতুল ইসলাম বলেন, ‘আমরা মনে করেছিলাম সারা বিশ্বের তুলনায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়কে সেই পর্যায়ে নেওয়া যাচ্ছে না আর্থিক সংকটের কারণে। এই প্রতিষ্ঠানের ছাত্র শিক্ষকরা মেধাবী। সরকার বাজেট দিচ্ছে এবং প্রতিবছর বাড়াচ্ছে কিন্তু এই বাজেট দিয়ে এর রিসার্চ ও রেনোভেশন করা সম্ভব হয় না। তাই আমরা সিএসআরের ফান্ডের জন্যে চেষ্টা করি এবং বিজনেস ষ্টাডিজ ফ্যাকাল্টিতে সিএসআরের মাধ্যমে এই উপমহাদেশের সবচেয়ে আধুনিক ই-লাইব্রেরী স্থাপন করা হয়েছে। তাছাড়া ওই ফ্যাকাল্টিতে ক্যান্টিন, ছাত্রছাত্রীদের বসার ব্যবস্থা, ভার্চুয়াল ক্লাসরুমসহ মডার্ন সুযোগ সুবিধার ব্যবস্থা করা হয়েছে। এরই ধারাবাহিকতায় আমরা বিশ্ববিদ্যালয়ের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ এলাকা অপরাজেয় বাংলা এবং কলা ভবন চত্ত্বরের উন্নয়নে কাজ করেছি।’ অনুষ্ঠানে কলা অনুষদ এর ডীন অধ্যাপক ড. আবু মোহাম্মদ দেলোয়ার হোসেন বলেন, ‘আমাদের জাতীয় ঐতিহ্যের অংশ কলা ভবন চত্ত্বরের সৌন্দর্য বর্ধন এবং শহীদ স্মৃতিফলক নির্মাণ করতে পেরে একটা বড় দায়িত্ব শেষ করতে পারলাম।’ এই কাজে সার্বিক সহযোগিতা করার জন্যে দাতা প্রতিষ্ঠানকে ধন্যবাদ দেন তিনি। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে শহীদ স্মৃতি ফলক নির্মাণ এবং কলা ভবন চত্ত্বরের সৌন্দর্য বর্ধন প্রসঙ্গে এসিআই লিমিটেড এর চেয়ারম্যান এম. আনিস উদ দৌলা বলেন, ‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা ভবন প্রাঙ্গন দেশের ইতিহাসের অংশ। এই রকম সমৃদ্ধ ইতিহাস পৃথিবীর খুব কম বিশ্ববিদ্যালয়েরই আছে। এই প্রাঙ্গনের সৌন্দর্য বর্ধণে আমরা সহযোগিতা করতে পারছি এটা আমাদের জন্যে খুবই আনন্দের ব্যাপার।’ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন এসিআই লিমিটেড এর ম্যানেজিং ডিরেক্টর ড. আরিফ দৌলা এবং এসিআই ফর্মুুলেশন লিমিটেড এর ম্যানেজিং ডিরেক্টর সুষ্মিতা আনিস।