ফের মার্কিন প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে সুর চড়াল কিম জং উনের দেশ উত্তর কোরিয়া। এবার সরাসরি ডোনাল্ড ট্রাম্পকে ভিখারির আসনে বসাতেও দ্বিধা করল না তারা। এমনকী তার এশিয়া সফরে ট্রাম্প নিজেকে ধ্বংসকারী হিসাবে অন্যান্য দেশের সামনে তুলে ধরছেন।

শনিবার এমনই দাবি করেছেন উত্তর কোরিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক মুখপাত্র।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক মুখপাত্রের বরাত দিয়ে দেশটির বেশ কয়েকটি গণমাধ্যম জানিয়েছে, ট্রাম্পের এই এশিয়া সফরে তিনি নিজেকে বিশ্ব শান্তির ধ্বংসকারী হিসাবে তুলে ধরেছেন। আর এই এশিয়া সফরের নামে বিভিন্ন দেশের কাছে ভিক্ষা চাইছেন সহযোগিতার। যাতে উত্তর কোরিয়ার ওপর পারমানবিক যুদ্ধ নামিয়ে আনতে পারেন ট্রাম্প। এই মন্তব্যের পর ফের যুযুধান দু’পক্ষের মধ্যে দ্বন্দ্ব বাড়ল বলে মনে করছে আন্তর্জাতিক কূটনৈতিক মহল।

কিছুদিন আগেই ট্রাম্পের পক্ষ থেকে হুঁশিয়ারি দিয়ে বলা হয়েছিল, আমেরিকাকে কখনও খাটো করবেন না। নিজের পারমানবিক উচ্চাকাঙ্ক্ষা থেকে বেরিয়ে আসতে পারলে ভবিষ্যতে কিম জং উনকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেওয়া হবে। এদিন যেন সেই হুঁশিয়ারিরই জবাব দেওয়া হল উত্তর কোরিয়ার পক্ষ থেকে।

তাদের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ‘আমাদের ভয় দেখানোর চেষ্টা করবেন না। আর আমাদের এগিয়ে যাওয়াকে রোখার চেষ্টা করবেন না। বরং আমরা নিজেদের দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাব পারমানবিক শক্তির বৃত্ত পূর্ণ করার লক্ষ্যে। ‘ উত্তর কোরিয়ার এই পাল্টা হুঁশিয়ারিতে ট্রাম্প কি জবাব দেন এখন সেটাই দেখার বিষয়।