গত নভেম্বরে মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জয় লাভ করেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। তার এ জয় অনেকের কাছেই ছিল অপ্রত্যাশিত।
জয় পরবর্তী সময়ে এ নিয়ে তৈরি হয়েছে নানা প্রশ্ন ও বিতর্কের। সৃষ্টি হয়েছিল ভয় ও শঙ্কা,উদ্বেগের,। নিরাশ হয়েছে বিশ্ববাসী আর হতাশ হন হিলারি সমর্থকরাও। তাকে নিয়ে বিশ্বজুড়ে চলে নানাবিধ জটিল সমীকরণের হিসাব-নিকাষ।

আর ওই পরিস্থিতিতে ডেমোক্রেটিক পার্টি ও হিলারি সমর্থকদের সান্ত্বনার বাণী শুনিয়েছিলেন বারাক ওবামা। ডোনাল্ড ট্রাম্পকে জানিয়েছিলেন অভিনন্দন, প্রতিশ্রুতি দিয়ে শান্তিপূর্ণভাবে ক্ষমতাও হস্তান্তর করেন। বলেছিলেন, সবকিছুর ঊর্ধ্বে যুক্তরাষ্ট্রের গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা।

তবে নিজের মেয়ে মালিয়া ও শাশার কাছে ট্রাম্পের জয়কে উপস্থাপন করেন একটি ‘বিপর্যয়’ হিসেবে। ওবামা তার মেয়েদের উদ্দেশে বলেছিলেন, ‘তোমাদের কর্তব্য হচ্ছে জনগণের জন্য লড়াই করা, তাদের উৎসাহিত করা।
তোমরা একটি ‘বিপর্যয়ে’ উদ্বিগ্ন হয়ে পড়ো না বরং সামনে এগিয়ে যেতে লড়ে যাও। ’

ওই সময়ে যুক্তরাষ্ট্রের গণমাধ্যম দ্য নিউইয়র্কারকে ওবামা বলেছিলেন, ‘আমি তাদেরকে (মালিয়া ও শাশা) বলেছি যে, মানুষ খুবই জটিল। সমাজ ও সংস্কৃতি আসলেই খুব জটিল…এটা কোনো গণিতের পাঠ নয়, এটা জীববিজ্ঞান ও রসায়নের পাঠ। মানবজাতি জীবিত প্রাণিসত্তা এবং খুবই বিশৃঙ্খল। তাই একজন নাগরিক ও পরিশীলিত মানুষ হিসেবে তোমাদের কাজ হচ্ছে প্রতিনিয়ত অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানো; তাদের সঙ্গে সদ্ব্যবহার করা; তাদের অধিকার নিশ্চিত করতে লড়াই করা; তাদের প্রতি দয়া, সম্মান প্রদর্শন করা এবং তাদের দুঃখ কষ্ট উপলব্ধি করা।

ওবামা ওই সময় আরো বলেন, ‘সমাজে যেকোনো সময় গোঁড়ামির উত্থান ঘটতে পারে। তোমাদেরকে এরকম পরিস্থিতির মোকাবিলাও করতে হতে পারে। তোমাদের নিজেদের ভেতরেও এটি হতে পারে, একে হার মানাতে হবে। আর এ গোঁড়ামি কখনো থেমে থাকে না… তবে এর জন্য কখনো মুষড়ে পড়ো না। তোমরা কখনো বিপর্যয় নিয়ে দুশ্চিন্তাগ্রস্ত হবে না। তোমাদের বলতে হবে, ঠিক আছে, একে চেপে রেখে সামনে এগিয়ে যেতে হবে।