ঝিনাইদহ সংবাদদাতাঃ
একদিন ছোট ভাই জয় (তৃতীয় শ্রেণীর ছাত্র) একদিন স্কুলে না আসলে সাগরের (চতুর্থ শ্রেণীতে পড়ে) স্কুলে যাওয়া বন্ধ থাকতো। কারণ তার ব্যবহৃত হুইল চেয়ারটি ছোট ভাই জয় প্রতিদিন ঠেলে নিয়ে আসতো। শারীরিক ভাবে প্রতিবন্ধি সাগরের খুব ইচ্ছা পড়াশোনা করবে। ছোট ভাইয়ের সাথে সে স্কুলে যাতায়াত করতো। অনেক কষ্ট হতো জয়েরও, কারণ ভারী হুইল চেয়ারটি ঠেলে আনা তার জন্য ছিল কষ্টের। কিন্তু বর্তমানে সাগরের ব্যবহৃত হুইল চেয়ারটি ভেঙ্গে নষ্ট হয়ে গেছে। যার কারণে সে ঠিক মতো স্কুলে আসতে পারছে না। মাঝে মাঝে অন্যের বাইসাইকেলে চেপে তাকে স্কুলে আসতে হচ্ছে। ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ পৌরসভার শ্রীরামপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা উম্মে হানি জানান, সাগর আগে ঠিকমতো স্কুলে আসতো ছোট ভাই জয়ের সহযোগিতায়। কিন্তু বর্তমানে তার ব্যবহৃত হুইল চেয়ারটি নষ্ট হয়ে যাওয়ায় ঠিকমতো আসতে পারছে । সমাজে কেউ কি এগিয়ে আসবেন একটি ব্যাটারী চালিত হুইল চেয়ার নিয়ে? আপনার সামান্য সহযোগিতায় প্রতিবন্ধি সাগরের পড়াশোনার পথ আরো মসৃন হবে হয়তো। গরীব পিতার পক্ষে সাগরের ব্যাটারী চালিত হুইল চেয়ার কিনে দেওয়া সম্ভব না।