মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে অনুসরণ করে গুয়েতমালা ইসরায়েলে অবস্থিত তাদের দূতাবাস জেরুজালেমে স্থানান্তরের কথা জানিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট জিমি মোরালেস। ট্রাম্প জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে ঘোষণার পর এই প্রথম কোনো দেশ প্রকাশ্যে এমন ঘোষণা দিল।

দ্য গার্ডিয়ানের খবর, ক্রিসমাসের প্রাক্কালে জিমি মোরালেস তার অফিসিয়াল ফেসবুক অ্যাকাউন্টে বলেন, ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর সঙ্গে আলোচনার পর তিনি দূতাবাস স্থানান্তরের জন্য পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে নির্দেশ দিয়েছেন।

তবে, ডোনাল্ড ট্রাম্পের মতো জিমি মোরালেসও দূতাবাস সরানোর কথা জানালেও কবে সেটা করা হবে তা নির্দিষ্ট করেন বলেননি।

বার্তা সংস্থা এপির খবরে বলা হয়েছে, গুয়েতমালা ও ইসরায়েলের মধ্যে দীর্ঘদিনের ঘনিষ্ঠ বন্ধন রয়েছে, বিশেষ করে নিরাপত্তা এবং গুয়েতমালায় অস্ত্র বিক্রির ক্ষেত্রে।


গুয়েতমালার প্রেসিডেন্ট জিমি মোরালেস ও ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু। ফাইল ছবি

দ্য গার্ডিয়ানের খবরে বলা হয়, কিছুদিন আগে জেরুজালেম ইস্যুতে নিরাপত্তা পরিষদে যে ভোটাভুটি হয়েছিল, সেখানে যুক্তরাষ্ট্রকে যে ৯টি দেশ সমর্থন দিয়েছিলেন তাদের একটি গুয়েতমালা।

প্রসঙ্গত, গত ৬ ডিসেম্বর জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী ঘোষণা করে সেখানে দূতাবাস স্থানান্তরের কথা জানান মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এরপর থেকে পুরো বিশ্ব ক্ষোভ প্রকাশ করলেও সিদ্ধান্তে অনড় ট্রাম্প। এদিকে, এরপর থেকে ট্রাম্পের সিদ্ধান্তের বিরোধীতা করে আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছে ফিলিস্তিন। এতে ইসরায়েলি নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ১২ ফিলিস্তিনি নাগরিক নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন বহু মানুষ।