ওয়ালটন জাতীয় মার্শাল আর্ট প্রতিযোগিতা-২০১৭’ আজ সমাপনী ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে শেষ হয়েছে।

সকালে জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের পুরাতন ভবনের নিচতলার জিমনেসিয়ামে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বিভিন্ন ওজন শ্রেণিতে পদক জয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করেন পৃষ্ঠপোষক প্রতিষ্ঠান ওয়ালটন গ্রুপের অপারেটিভ ডিরেক্টর (হেড অব স্পোর্টস এন্ড ওয়েলফেয়ার) এফএম ইকবাল বিন আনোয়ার (ডন)। এ সময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ মার্শাল আর্ট কনফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক হাসান উজ্জামান মনিসহ ফেডারেশনের অন্যান্য কর্মকর্তাগণ।

আজ শনিবার শক্তিমত্তা প্রদর্শনী, সেল্ফ ডিফেন্স ও অস্ত্রশস্ত্র বিভাগে সানচাক্কু প্রদর্শনীতে স্বর্ণ জিতেছেন মো. আব্দুল গফুর সরকার। তিনি ডাবল সামুরাই প্রদর্শনী ও সামুরাই দিয়ে গলায় শসা কাটা প্রদর্শনীতেও স্বর্ণ জিতেছেন। হাত দিয়ে টালি ভাঙা প্রতিযোগিতায় স্বর্ণ জিতেছেন মো. আহসানুল ইসলাম। আর আত্মরক্ষায় স্বর্ণ জিতেছেন মো. আব্দুল গফুর সরকার।

কুংফু সিনিয়র পুরুষ বিভাগে স্বর্ণ জিতেছেন আছরার আহমেদ, রৌপ্য জিতেছেন মো. ওমর ফারুক আর ব্রোঞ্জ জিতেছেন মো. ইসমাইল। জুনিয়র পুরুষ বিভাগে স্বর্ণ জিতেছেন তাহমিদ তাজওয়ার, রৌপ্য আবরার হাসান সুস্ময় এবং ব্রোঞ্জ জিতেছেন সাদমান সামিন। কুংফু সিনিয়র মহিলা বিভাগে স্বর্ণ জিতেছেন আয়েশা আক্তার। আর রৌপ্য জিতেছেন সৈয়দা তানজিনা রহমান শান্ত। মহিলা জুনিয়র বিভাগে স্বর্ণ জিতেছেন আকরার রায়হান চৌধুরী, রৌপ্য জিতেছেন মুনতাহা বিনতে আমিন।

তার আগে পুরুষ কাতা বিভাগে স্বর্ণ জিতেছেন এজাক্স এসসির মীর ইফতেখার হোসেন। রৌপ্য জিতেছেন স্পোর্টস মার্শাল আর্টের নাঈম। আর ব্রোঞ্জ জিতেছেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর মো. মনির হোসেন। মহিলা কাতায় স্বর্ণ জিতেছেন এজাক্সের হুমায়রা আক্তার অন্তরা। রৌপ্য জিতেছেন আজাক্সের জান্নাতুল ফেরদৌস। আর ব্রোঞ্চ জিতেছেন এজাক্সের নাছিমা আক্তার জুঁই।

এ ছাড়া পুুরুষ ৫০ কেজি ওজন শ্রেণিতে স্বর্ণ জিতেছেন আরিয়ানা একাডেমির ইব্রাহীম হাসান, রৌপ্য এজাক্সের রেজাউল করিম মাসুম, ব্রোঞ্জ জিতেছেন জ্যাকি মার্শাল আর্টের ওয়ারেস হোসেন। ৫৫ কেজি ওজন শ্রেণিতে স্বর্ণ জিতেছেন এজাক্সের মোস্তফা কামাল, রৌপ্য জিতেছেন সোতকানের মো. শাহীন এবং ব্রোঞ্জ জিতেছেন স্পোর্টস মার্শাল আর্টের সাগর কুন্দা। পুরুষ ৬০ কেজি ওজন শ্রেণিতে স্বর্ণ জিতেছেন এজাক্সের সিয়াম, রৌপ্য জিতেছেন উপদান দো এর জুনায়েদ খান, আর ব্রোঞ্জ জিতেছেন আরিয়ান একাডেমির জনি মিয়া। ছেলেদের ৬৫ কেজি ওজন শ্রেণিতে স্বর্ণ জিতেছেন এজাক্সের কামরুজ্জামান তৌহিদ, রৌপ্য জিতেছেন স্পোর্টস মার্শাল আর্টের ওয়ালিল হাসনাত জামান, ব্রোঞ্জ জিতেছেন মার্শাল শাহাজাদার মো. কবির হোসেন। পুরুষ অনূর্ধ্ব ৭০ কেজি ওজন শ্রেণিতে স্বর্ণ জিতেছেন এজাক্সের মো. হোসেন খান, রৌপ্য স্পোর্টস মার্শাল আর্টের সিরাজ হোসেন এবং ব্রোঞ্জ জিতেছেন একই দলের আকরাম খান। ৭০+ কেজি ওজন শ্রেণিতে স্বর্ণ জিতেছেন সোতকান দো এর মৃদুল। রৌপ্য জিতেছেন স্পোর্টস মার্শাল আর্টের জহিরুল ইসলাম রাজু। আর ব্রোঞ্জ জিতেছেন ব্লাক টাইগারের কাহবিয়া শুভ।

এদিকে মেয়েদের ৪২ কেজি ওজন শ্রেণিতে স্বর্ণ জিতেছেন আজাক্সের শিউলী সুলতানা, রৌপ্য জিতেছেন জ্যাকি মার্শাল আর্টের আফরা সাইয়ারা সুবাহ, ব্রোঞ্জ জিতেছেন উপকান দো এর সাবরিনা আক্তার মিতু। ৪৮ কেজি ওজন শ্রেণিতে স্বর্ণ জিতেছেন স্পোর্টস মার্শাল আর্টের তাসলিমা আক্তার, রৌপ্য জিতেছেন সেনাবাহিনীর রুবিনা খাতুন আর ব্রোঞ্জ জিতেছেন আজাক্সের তাসনিয়া সিদ্দিকী। মেয়েদের ৫২ কেজি ওজন শ্রেণিতে স্বর্ণ জিতেছেন আজাক্সের জান্নাতুল ফেরদৌস সুমী, রৌপ্য জিতেছেন স্পোর্টস মার্শাল আর্টের নাটালী রায় ঐশ্বর্য আর ব্রোঞ্জ জিতেছেন উপকানের রোকেয়া। ৫৬ কেজি ওজন শ্রেণিতে স্বর্ণ জিতেছেন আজাক্সের হুমায়ারা আক্তার, রৌপ্য জিতেছেন জ্যাকি মার্শাল আর্টের সাবিকুন্নাহার সোহাগী, ব্রোঞ্জ জিতেছেন জ্যাকি মার্শাল আর্টের তাহিয়া আব্দুল্লাহ। মহিলা অনূর্ধ্ব-৬০ কেজি ওজন শ্রেণিতে স্বর্ণ জিতেছেন এজাক্সের মারজান, রৌপ্য বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর নওশীন এবং ব্রোঞ্জ আরিয়ানার শারমিনের। আর ৬০+ কেজি ওজন শ্রেণিতে স্বর্ণ জিতেছেন এজাক্স এসসির রাবেয়া খাতুন, রৌপ্য জিতেছেন সোতকান দো এর জামিলা খাতুন ঝিনুক আর ব্রোঞ্জ জিতেছেন উপকান দো এর ঝর্ণা।

এবারের এই ওয়ালটন জাতীয় মার্শাল আর্ট প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশ পুলিশ, সেনাবাহিনীসহ দেশের বিভিন্ন জেলার ৫৮টি মার্শাল আর্ট ক্লাব ও সংস্থার মোট ১ হাজার ২৫০ জন খেলোয়াড় অংশ নিয়েছে। এই প্রতিযোগিতায় যারা ভালো করছেন তারা ডিসেম্বরে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া শেখ কামাল স্মৃতি আন্তর্জাতিক মার্শাল আর্ট প্রতিযোগিতায় অংশ নেওয়ার সুযোগ পাবে। যেখানে ৩০টি দেশ অংশ নিবে।