শাহারিয়া শাহাদাত, রিপোর্টার
চাঁপাইনবাবগঞ্জ:-চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোল উপজেলার নবম শ্রেণির এক স্কুল ছাত্রীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় দায়ের করা মামলায় প্রধান আসামি নাচোলের মাক্তাপুর ঝলঝলিয়া গ্রামের মঞ্জুর হোসেনের ছেলে আব্দুর রহিমের (২২) বোন হাজেরা খাতুনকে (২৮) গত বুধবার রাতে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।
মামলার তদন্ত কর্মকর্তা নাচোল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) লালন কুমার দাস জানান, বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে গত ২৫ মে ও ২২ জুলাই আব্দুর রহিম তাঁর বোন হাজেরা খাতুনসহ কয়েকজনের সহযোগিতায় ওই ছাত্রীকে গোমস্তাপুর উপজেলার রহনপুর নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে। কিন্তু আব্দুর রহিম পরবর্তীতে মেয়েটিকে বিয়ে করতে অস্বীকার করে। পরিপ্রেক্ষিতে গত বুধবার রাতে নাচোল থানায় মেয়েটির পিতা বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করে। মামলা দায়েরের পরপরই ওইদিন রাতেই হাজেরা খাতুনকে গ্রেপ্তার করা হয়। বৃহস্পতিবার তাঁকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। আব্দুর রহিম পলাতক রয়েছে। বৃহস্পতিবার সদর হাসপাতালে মেয়েটির ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে।