আজ ২৫ আগষ্ঠ ২০১৭ রোজ শুকবার বকিাল ৩ টায় ৫৭/১২, সোনারগাঁও প্লাজা, ৪র্থ তলা, পান্থপথ, ঢাকা।
বাংলাদেশ কর্মসংস্থান আন্দোলন এর অফসিে (১) ১৯৭২ সালের গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশের ৯০-খ ধারার বিলুপ্তি, (২) শুধু কেন্দ্রীয় কমিটি, কেন্দ্রীয় কার্যালয় ও গঠনতন্ত্রের ভিত্তিতে নতুন রাজনৈতিক দলের নিবন্ধন প্রদান ও (৩) নিবন্ধনের প্রক্রিয়া সারা বছর চালু রাখার দাবীতে দল নিবন্ধন আইন সংশোধন আন্দোলন- এর সংবাদ সম্মলেন পরবতী করনিয় নিয়ে আলোচনা অনুষ্টতি হয়। উক্ত আলোচনা সভায় সভাপত্বি করনে বাংলাদেশ কর্মসংস্থান আন্দোলন সভাপতি মোহাম্মদ দেলোয়ার হোসাইন।আরও উপস্থিত ছিলেন
বাংলাদেশ কংগ্রেস-এর চেয়ারম্যান এ্যাডভোকেট কাজী রেজাউল হোসেন,জাতীয় স্বাধীনতা পার্টির চেয়ারম্যান মোয়াজ্জেম হোসেন খান মজলিশ, বাংলাদেশ কংগ্রেসের মহাসচিব এ্যাডভোকেট মোঃ ইয়ারুল ইসলাম, তৃণমূল জনতা পার্টির মহাসচিব সরদার নাজিম উদ্দিন আহমেদ গেরিলা,বাংলাদশে ইসলামকি পার্টির মহাসচিব মহউিদ্দনি আহমদে, সোনার বাংলা পার্টির মহাসচিব সৈয়দ হারুন-অর-রশিদ, বাংলাদেশ জাতীয় দলের মহাসচিব রফিকুল ইসলাম সহ জাতীয় পার্টির নেত্বিতাধিন অনিবন্ধিত দল সমূহ,বিএন নেত্বিতাধিন অনিবন্ধিত দল সমূহ সহ বিভিন্ন নেত্বিবৃন্দ । বাংলাদেশ কর্মসংস্থান আন্দোলনের সভাপতি মোঃ দেলোয়ার হোসাইন বলেন পূর্বে যেখানে ১০ টি জেলা কমিটি এবং ৫০ উপজেলা কমিটি করার বিধান ছিল এখন তার দ্বিগুণ করে ২২ টি জেলা কমিটি এবং ১০০ উপজেলা কমিটির বিধান করা হয়েছে যা একটা নতুন দলের জন্য খুবই কষ্টকর । নির্বাচন কমিশনকে দল নিবন্ধনের প্রক্রিয়া গনতন্ত্রের স্বার্থে শিথিল করতে হবে। উক্ত আলোচনায় সকলেই ১৯৭২ সালের গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশের ৯০-খ ধারার বিলুপ্তি সহ নিবন্ধনের প্রক্রিয়া সারা বছর চালু রাখা ছাড়াও শুধু কেন্দ্রীয় কমিটি, কেন্দ্রীয় কার্যালয় ও গঠনতন্ত্রের ভিত্তিতে নতুন রাজনৈতিক দলের নিবন্ধন প্রদান করার দাবী জানান।এবং আগামি ২৭/০৮/২০১৭ইং তারিখে আগারগাও নিবাচন অফিসের সামনে প্রায় ১০০ টি রাজনৈতিক দলরে বনোরে মানব বন্ধন অনুষ্টতি হইব,এবং এই মানব বন্ধন থেকে নিবাচন কমিশনারকে স্বারক লিফি প্রদান করা হইবে বলে সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়।