ঢাকা, ৫ ফাল্গুন (১৭ ফেব্রæয়ারি) :

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, জ্ঞান ও সাহিত্যচর্চায় কাজী হায়াত মাহমুদের লেখনী ভবিষ্যৎ তরুণ প্রজন্মকে অনুপ্রেরণা যোগাবে। আধ্যাত্মিক জগতে তাঁর ছিল সরব বিচরণ। তিনি ছিলেন একজন আলোকিত সত্য মানুষ।

স্পিকার আজ তাঁর নির্বাচনি এলাকা পীরগঞ্জে রংপুর জেলা প্রশাসন আয়োজিত সাধক কবি কাজী হায়াত মাহমুদের মৃত্যুবার্ষিকী উদ্যাপন উপলক্ষে কবির মাজার প্রাঙ্গণে আলোচনাসভার প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তৃতাকালে এসব কথা বলেন।

স্পিকার বলেন, অষ্টাদশ শতাব্দীতে তথ্যপ্রযুক্তিহীন নিভৃতপল্লীতে ক্ষণজন্মা সাধক কবি হায়াতের সৃজনশীল কর্ম সমাজের নৈতিকতা বোধকে জাগ্রত করেছে। তাঁর সাহিত্য ও আধ্যাত্মিক কর্ম নিয়ে গবেষণা করার জন্য তরুণ প্রজন্মের প্রতি উদাত্ত আহŸান জানান তিনি। তিনি আরো বলেন, আধ্যাত্মিক সাধক কবি হায়াত মাহমুদ ছিলেন একজন দার্শনিক। এই দর্শন ছড়িয়ে দিতে হবে বাংলার প্রতিটি প্রান্তে।

স্পিকার প্রয়াত সাধক কবি কাজী হায়াত মাহমুদের সমাধিস্থল পরিদর্শন করেন এবং দোয়া মাহফিলে অংশগ্রহণ করেন।

এর আগে তিনি ভেন্ডাবাড়ী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ এবং এর অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীদের সাথে মতবিনিময় করেন। পরে স্পিকার শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন।

রংপুরের জেলা প্রশাসক মুহাম্মদ ওয়াহিদুজ্জামানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে আরো বক্তব্য রাখেন রংপুর জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ সভাপতি এ কে এম ছায়াদত হোসেন বকুল, পীরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এডভোকেট আজিজুর রহমান রাঙ্গা, পৌর মেয়র আবু সালেহ মোঃ তাজিমুল ইসলাম শামীম, রংপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার। এছাড়াও অনুষ্ঠানে রংপুর জেলা আওয়ামীলীগ এবং পীরগঞ্জ উপজেলা ও পৌর আওয়ামী লীগের স্থানীয় নেতৃবৃন্দ ও গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।