ওয়ালটন গ্রুপের পৃষ্ঠপোষকতায় টাঙ্গাইলের ঐতিহ্যবাসী বিন্দুবাসিনী সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের সাবেক ছাত্রদের নিয়ে রোববার থেকে শুরু হয় ‘ওয়ালটন বিন্দুবাসিনী বয়েজ ফুটবল টুর্নামেন্ট-২০১৭’। আজ মঙ্গলবার ফাইনাল ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে এই টুর্নামেন্ট শেষ হয়েছে।

টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে ২০১২ এর ব্যাচ। রানার-আপ হয়েছে ২০০৮ সালের ব্যাচ। ফাইনালে ২০১২ সালের ব্যাচ ২-০ ব্যবধানে ২০০৮ সালের ব্যাচকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে।

টুর্নামেন্টের ফেয়ার প্লে ট্রফি জিতেছে ২০১১ সালের ব্যাচ। গোল্ডেন বুট জিতেছেন ২০১২ সালের ব্যাচের রাব্বি। টুর্নামেন্ট সেরাও হয়েছেন তিনি। ফাইনালের সেরা খেলোয়াড় হয়েছেন একই ব্যাচের সোলাইমান। টুর্নামেন্টের উদীয়মান খেলোয়াড় হয়েছেন ২০১৮ এর ব্যাচের রকি। এ ছাড়া সেরা গোলরক্ষক হয়েছেন ২০১২ এর ব্যাচের রাকিল, সেরা রক্ষণভাগের খেলোয়াড় ২০১১ এর ব্যাচের সুইট, সেরা মিডফিল্ডার ২০০৯ সালের ব্যাচের জিল্লুর।

ফাইনাল শেষে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে পুরস্কার বিতরণ করেন ওয়ালটন গ্রুপের অপারেটিভ ডিরেক্টর (হেড অব স্পোর্টস এন্ড ওয়েলফেয়ার) এফএম ইকবাল বিন আনোয়ার (ডন)। সমাপণী ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিন্দুবাসিনী সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. আব্দুল করিম।

বিন্দুবাসিনী সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের স্কুলের সাবেক ছাত্রদের নিয়ে গঠিত ১৮টি দল অংশ নিয়েছে এই টুর্নামেন্টে।