ক্রীড়াবান্ধব প্রতিষ্ঠান ওয়ালটন গ্রুপের পৃষ্ঠপোষকতায় ও বাংলাদেশ তায়কোয়ানডো ফেডারেশনের ব্যবস্থাপনায় আগামী রোববার থেকে শুরু হতে যাচ্ছে ওয়ালটন প্রথম বিচ তায়কোয়ানডো প্রতিযোগিতা-২০১৭। পৃথিবীর দীর্ঘতম সমুদ্র সৈকত কক্সবাজারের লাবনী পয়েন্টে দুইদিন ব্যাপী এই প্রতিযোগিতা ৩০ অক্টোবর পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে শেষ হবে।

 

এই প্রতিযোগিতাকে সামনে রেখে আজ বৃহস্পতিবার জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের পুরাতন ভবনের সভাকক্ষে সাংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন ওয়ালটন গ্রুপের অপারেটিভ ডিরেক্টর (হেড অব স্পোর্টস এন্ড ওয়েলফেয়ার) এফএম ইকবাল বিন আনোয়ার (ডন), বাংলাদেশ তায়কোয়ানডো ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুল ইসলাম রানা, এটিএন বাংলার জেষ্ঠ্য প্রতিবেদক পরাগ আরমানসহ অন্যান্যরা।

 

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয় ওয়ালটন প্রথম বিচ তায়কোয়ানডো চ্যাম্পিয়নশিপে দেশের বিভিন্ন সংস্থা জেলা, স্কুল, কলেজের প্রায় ৩০০ জন ছেলে-মেয়ে অংশগ্রহণ করবে। পুরুষ জুনিয়র বিভাগের পাঁচটি ওজন শ্রেণি হল- অনূর্ধ্ব-৫৮ কেজি, অনূর্ধ্ব-৬৮ কেজি, অনূর্ধ্ব-৭৮ কেজি ও ৭৮+ কেজি। মহিলা জুনিয়র বিভাগের ওজন শ্রেণিগুলো হল- অনূর্ধ্ব-৪৯ কেজি, অনূর্ধ্ব-৫৭ কেজি, অনূর্ধ্ব-৬৩ কেজি ও ৬৩+ কেজি। এ ছাড়া পুরুষ ও মহিলা জুনিয়র পুমসে ক্যাটাগোরিতে একক, দ্বৈত ও দলগত ইভেন্ট প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে।

 

সংবাদ সম্মেলনে ওয়ালটন গ্রুপের অপারেটিভ ডিরেক্টর (হেড অব স্পোর্টস এন্ড ওয়েলফেয়ার) এফএম ইকবাল বিন আনোয়ার (ডন) বলেন, ‘আমরা ওয়ালটন গ্রুপ সবকিছুতেই পাইওনিয়ার হওয়ার চেষ্টা করি। ওয়ালটন গ্রুপের পৃষ্ঠপোষকতায় প্রথম বিচ কাবাডি, প্রথম বিচ ভলিবল, প্রথম বিচ কুস্তি, প্রথম বিচ টেনিস, প্রথম বিচ বডিবিল্ডিংসহ বেশ কয়েকটি টুর্নামেন্ট প্রথমবারের মতো পৃথিবীর দীর্ঘতম সমুদ্র সৈকত কক্সবাজারে আয়োজন করেছি। সেগুলোর মধ্যে বেশ কিছুর ধারাবাহিকতাও রক্ষা করে চলছি। এবার বাংলাদেশ তায়কোয়ানডো ফেডারেশনের সঙ্গে সম্পৃক্ত হয়ে প্রথমবারের মতো বিচ তায়কোয়ানডো প্রতিযোগিতা আয়োজন করতে যাচ্ছি। আমরা ওয়ালটন গ্রুপ কক্সবাজারে নানা টুর্নামেন্ট আয়োজনের মধ্য দিয়ে প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের লীলাভূমি কক্সবাজারকে প্রমোট করার চেষ্টা করে যাচ্ছি। আমি এই প্রতিযোগিতার সর্বাঙ্গিন সাফল্য ও সফল পরিসমাপ্তি কামনা করছি।’

বাংলাদেশ তায়কোয়ানডো ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুল ইসলাম রানা ওয়ালটন গ্রুপের প্রশংসা করে বলেন, ‘প্রথম বিচ তায়কোয়ানডো প্রতিযোগিতায় পৃষ্ঠপোষকতার হাত বাড়িয়ে দেওয়ায় বাংলাদেশ তায়কোয়ানডো ফেডারেশনের পক্ষ থেকে ওয়ালটন গ্রুপের সকল কর্মকর্তাদের ধন্যবাদ জানাচ্ছি। আশা করছি ভবিষ্যতেও তারা আমাদের পাশে থাকবে।’