ক্রীড়াবান্ধব প্রতিষ্ঠান ওয়ালটন গ্রুপের পৃষ্ঠপোষকতায় ও ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) আয়োজনে আগামীকাল সোমবার থেকে প্রথমবারের মতো শুরু হচ্ছে ওয়ালটন-ডিআরইউ মিডিয়া কাপ ভলিবল টুর্নামেন্ট। পল্টনন্থ জাতীয় ভলিবল স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ছয়দিন ব্যাপী এই প্রতিযোগিতা আগামী শনিবার ফাইনাল ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে শেষ হবে।
প্রতিযোগিতা উপলক্ষে আজ রোববার ডিআরইউ’র সাগর-রুনী মিলনায়তনে এক সংবাদ সম্মেলনে প্রতিযোগিতার বিভিন্ন তথ্য উপস্থাপন করেন ক্রীড়া সম্পাদক মো. মজিবুর রহমান। ডিআরইউ সভাপতি সাখাওয়াত হোসেন বাদশার সভাপতিত্বে সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মুরসালিন নোমানী, বাংলাদেশ অলম্পিক এসোসিয়েশনের উপ-মহাসচিব ও বাংলাদেশ ভলিবল ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক আশিকুর রহমান মিকু, পৃষ্ঠপোষক প্রতিষ্ঠান ওয়ালটন গ্রুপের অপারেটিভ ডিরেক্টর (হেড অব স্পোর্টস এন্ড ওয়েলফেয়ার) এফ এম ইকবাল বিন আনোয়ার (ডন) ও টুর্নামেন্ট কমিটির সদস্য সচিব আমিনুল ইসলাম মল্লিক।
সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয় ওয়ালটন-ডিআরইউ মিডিয়া কাপ ভলিবল প্রতিযোগিতায় ২৪টি জাতীয় দৈনিক, সংবাদ সংস্থা, অনলাইন মিডিয়া এবং স্যাটেলাইট চ্যানেল অংশগ্রহণ করবে। টুর্নামেন্টের চ্যাম্পিয়ন দল ট্রফি ছাড়াও নগদ ৩০ হাজার টাকা এবং রানার্স আপ দল ট্রফি ছাড়াও নগদ ২০ হাজার টাকা এবং সেরা খেলোয়াড়কে ট্রফি এবং অংশগ্রহণকারী প্রতিটি দলকে ১ হাজার টাকা করে সম্মানী প্রদান করা হবে। এ ছাড়া টুর্নামেন্টের প্রত্যেক ম্যাচের সেরা খেলোয়াড়কে পৃষ্ঠপোষক প্রতিষ্ঠান ওয়ালটন গ্রুপের পক্ষ থেকে হোম অ্যাপ্লায়েন্স দিয়ে উৎসাহিত করা হবে।

টুর্নামেন্টে অংশ নিতে যাওয়া দলগুলো হল : জনকণ্ঠ, যুগান্তর, নয়াদিগন্ত, আমাদের সময়, ভোরের কাগজ, আজকালের খবর, সংগ্রাম, ডেইলি সান, বাংলানিউজ২৪.কম, বিডিনিউজ২৪.কম, বাসস, নিউ এইজ, চ্যানেল আই, এটিএন বাংলা, জিটিভি, এটিএন নিউজ, এনটিভি, আরটিভি, এসএ টিভি, বাংলাভিশন, রেডিও টুডে, বাংলাদেশের খবর, জাগো নিউজ ও খোলা কাগজ।

সংবাদ সম্মেলনে পৃষ্ঠপোষক প্রতিষ্ঠান ওয়ালটন গ্রুপের এফ এম ইকবাল বিন আনোয়ার (ডন) বলেন, ‘এর আগেও আমরা ডিআরইউর বিভিন্ন আয়োজনের সঙ্গে সম্পৃক্ত হয়েছি। তারই ধারাবাহিকতায় এবারও তাদের সঙ্গে সম্পৃক্ত হয়ে প্রথমবারের মতো মিডিয়া কাপ ভলিবল টুর্নামেন্ট আয়োজন করেছি। ওয়ালটন গ্রুপ সংবাদিকদের বিনোদনের বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে দেখে। আসলে আমরা সবাই নিজ নিজ কাজে ব্যস্ত সময় পার করি। তাতে আমাদের মধ্যে একটা একঘেয়েমিতা চলে আসতে পারে। সেটা দূর করতে এটা হতে পারে দারুণ একটি উদ্যোগ। পেশাগত কর্মব্যস্ততার মাঝে এমন একটি আয়োজনে অংশ নিতে পারলে সাংবাদিকরা আনন্দিত হবেন। গতানুগতিক কাজের ভাজেও কিছুটা নিরেট বিনোদন পাবেন। যা তাদের কর্মস্পৃহা বৃদ্ধি করবে। পাশাপাশি একে অপরের প্রতি আন্তরিকতা বাড়বে। তাছাড়া আমরা চাই বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান, সংবাদ সংস্থা ও মিডিয়া হাউজের সঙ্গে আমাদের আত্মিক সম্পর্ক আরো দৃঢ় হোক। এই টুর্নামেন্ট সুন্দর ও স্বার্থকভাবে এগিয়ে যাক সেই কামনা করি। ভবিষ্যতেও আমরা ডিআরইউ’র অভ্যন্তরীণ খেলাধুলাসহ অন্যান্য ইভেন্টেও সাথে থাকব।’

ডিআরইউ’র সভাপতি সাখাওয়াত হোসেন বাদশা বলেন, ‘এ বছর আমরা টানা দ্বিতীয়বারের মতো ক্রীড়া সম্পাদকের নেতৃতে সদস্য ও সন্তানদের সাঁতার প্রশিক্ষণ, পারিবারিক ক্রীড়া উৎসব, মিডিয়া কাপ হ্যান্ডবল টুর্নামেন্ট ও মিডিয়া কাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট আয়োজন করেছি। প্রথমবারের মত এবার আয়োজন করতে যাচ্ছি মিডিয়া কাপ ভলিবল টুর্নামেন্ট। ওয়ালটন আমাদের স্পন্সর হওয়ার জন্য ধন্যবাদ জানাচ্ছি। ভবিষ্যতে তারা আমাদের বিভিন্ন কর্মসূচিতে পাশে থাকবেন বলে আশা করি।’

সাধারণ সম্পাদক মুরসালিন নোমানী বলেন, ‘ডিআরইউর ক্রীড়া সম্পাদকের নেতৃত্বে আমরা বেশ কয়েকটি ইভেন্ট ভালোভাবে শেষ করতে পেরেছি। আমরা এবার ওয়ালটন-ডিআরইউ মিডিয়া কাপ ভলিবল টুর্নামেন্টটিও সুন্দরভাবে শেষ করতে চাই। ভবিষ্যতে আমরা ডিআরইউর ক্রীড়ায় একটি ভিন্নমাত্রা যোগ করতে চাই।’

বাংলাদেশ অলম্পিক এসোসিয়েশনের উপ-মহাসচিব ও বাংলাদেশ ভলিবল ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক আশিকুর রহমান মিকু বলেন, ‘আমরা সব সময় ডিআরইউ’র পাশে আছি এবং থাকব। ওয়ালটন-ডিআরইউ মিডিয়া কাপ ভলিবল টুর্নামেন্টটি সুন্দরভাবে সম্পন্ন করতে আমরা সবরকম সহযোগিতা করব।’

সংবাদ সম্মেলনে ক্রীড়া সম্পাদক মো. মজিবুর রহমান বলেন, ‘নির্বাচিত হওয়ার পর থেকেই আমার চিন্তা-ভাবনা ছিল ডিআরইউর ক্রীড়াঙ্গনে নতুন কিছু সংযোজন করার। সেই পরিকল্পনা থেকেই সাঁতার প্রশিক্ষণ কর্মসূচি, পারিবারিক ক্রীড়া উৎসব, মিডিয়া কাপ হ্যান্ডবল টুর্নামেন্ট ও মিডিয়া কাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের আয়োজন সম্পন্ন করি। আজকের এই বড় একটি টুর্নামেন্ট আয়োজনের উদ্যোগ তারই ধারাবাহিকতার একটি অংশ। তিনি বলেন, ডিআরইউর মিডিয়া কাপ ভলিবল টুর্নামেন্টটি সুন্দরভাবে সম্পন্ন করতে সকলের সহযোগিতা প্রত্যাশা করছি। সামনে ডিআরইউ ইনডোর গেমসের ইভেন্টগুলোও সফলতার সাথে সম্পন্ন করতে চেষ্টা করব। স্পন্সর প্রতিষ্ঠানকে ধন্যবাদ জানিয়ে ভবিষ্যতেও ডিআরইউ’র খেলাধুলায় তাদের পাশে থাকার প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন। তিনি ভেন্যূসহ অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিত করায় ভলিবল ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক আশিকুর রহমান মিকুকে ধন্যবাদ জানান।’