ওয়ালটন গ্রুপের পৃষ্ঠপোষকতায় চলছে ‘ওয়ালটন ৩৭তম জাতীয় মহিলা দাবা চ্যাম্পিয়নশিপ-২০১৭’। বাংলাদেশ দাবা ফেডারেশনের ব্যবস্থাপনায় এই প্রতিযোগিতা চলবে ২৮ আগস্ট পর্যন্ত।

 

আজ মঙ্গলবার প্রতিযোগিতার তৃতীয় দিনে দাবা ফেডারেশনের সভাকক্ষে তৃতীয় রাউন্ডের খেলা অনুষ্ঠিত হয়। তৃতীয় রাউন্ডের খেলা শেষে ৪ জন খেলোয়াড় পূর্ণ ৩ পয়েন্ট করে নিয়ে মিলিতভাবে পয়েন্ট তালিকায় শীর্ষে রয়েছেন। এরা হলেন- গতবারের মহিলা চ্যাম্পিয়ন মানিকগঞ্জের নাজরানা খান ইভা, গতবারের মহিলা রানার-আপ মহিলা ফিদে মাস্টার শারমীন সুলতানা শিরিন, মহিলা ফিদে মাস্টার জাকিয়া সুলতানা ও জাহানার হক রুনু। তৃতীয় রাউন্ডের খেলায় প্রতিভা তালুকদার মহিলা ফিদে মাস্টার তনিমা পারভীনের সাথে, দিলারা জাহান নূপুর নোশিন আঞ্জুমের সাথে ও কাজী জারিন তাসনিম হামিদা বেগমের সাথে ড্র করেন। শিরিন ফারজানা হোসেন এ্যানিকে, ইভা আফরিন জাহান মুনিয়াকে, জাকিয়া তানজিনা আক্তার তানিকে, আন্তর্জাতিক মহিলা মাস্টার রানী হামিদ মহিলা ফিদে মাস্টার আফরোজা খানম বাবলীকে, মোছাম্মৎ ঝর্না বেগম সাসিন আক্তারকে ও কিশোয়ারা সাজরীন ইভানা ওয়ালিজা আহমেদকে পরাজিত করেন।

 

আগামীকাল (বুধবার) দুপুর ২টা থেকে একই স্থানে চতুর্থ রাউন্ডের খেলা শুরু হবে।

 

আজ মঙ্গলবার তৃতীয় রাউন্ডের খেলায় জাহানারা হক রুনু প্রাক্তন জাতীয় মহিলা চ্যাম্পয়ন দেশের শীর্ষ মহিলা রেটিং প্রাপ্ত খেলোয়াড় আন্তর্জাতিক মাস্টার শামীমা আক্তার লিজাকে পরাজিত করে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেন। জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের পুরাতন ভবনের তৃতীয় তলাস্থ দাবা ক্রীড়া কক্ষে অনুষ্ঠিত তৃতীয় রাউন্ডের খেলায় রুনু কালো ঘুঁটি নিয়ে লিজার কুইনস পন ওপেনিংয়ের বিরুদ্ধে খেলেন। ৯ নং চালে লিজা ভুল করায় রুনু একটি হাতি বেশি রাখতে সক্ষম হন এবং পরবর্তীতে ৫৩ চালে রুনু জয়ী হন।

 

এবারের এই প্রতিযোগিতায় দেশের দুই আন্তর্জাতিক মহিলা মাস্টার রানী হামিদ ও শামীমা আক্তার লিজা, গতবারের মহিলা চ্যাম্পিয়ন মানিকগঞ্জের নাজরানা খান ইভা, গতবারের মহিলা রানার-আপ মহিলা ফিদে মাস্টার শারমীন সুলতানা শিরিন, চট্টগ্রামের মহিলা ফিদে মাস্টার তনিমা পারভীন, মহিলা ফিদে মাস্টার জাকিয়া সুলতানা, মহিলা ফিদে মাস্টার আফরোজা খানম বাবলী, জাতীয় জুনিয়র বালিকা চ্যাম্পিয়ন নোশিন আঞ্জুমসহ ঢাকা শহর ও ২০টি জেলা হতে আগত ৬৭জন খেলোয়াড় এবারের মহিলা চ্যাম্পিয়নশিপে অংশ নিয়েছেন।

 

প্রতিযোগিতায় ১ লাখ টাকার প্রাইজমানি থাকছে। তার মধ্যে চ্যাম্পিয়ন ২৫ হাজার, রানার-আপ ২০ হাজার, তৃতীয় ১৫ হাজার, চতুর্থ ১০ হাজার, পঞ্চম ৭ হাজার, ষষ্ঠ ৫ হাজার ও সপ্তম থেকে দ্বাদশ প্রত্যেকে ৩ হাজার টাকা করে প্রাইজমানি পাবে। এ ছাড়া ওয়ালটন গ্রুপের পক্ষ থেকে বিজয়ীদের হোম অ্যাপ্লায়েন্স দিয়ে উৎসাহিত করা হবে।