ওয়ালটন গ্রুপের পৃষ্ঠপোষকতায় চলছে ‘ওয়ালটন ৩৭তম জাতীয় মহিলা দাবা চ্যাম্পিয়নশিপ-২০১৭’। বাংলাদেশ দাবা ফেডারেশনের ব্যবস্থাপনায় এই প্রতিযোগিতা চলবে ২৮ আগস্ট পর্যন্ত।

 

আজ রোববার প্রতিযোগিতার অষ্টম দিনে দাবা ফেডারেশনের সভাকক্ষে অষ্টম রাউন্ডের খেলা অনুষ্ঠিত হয়। অষ্টম রাউন্ডের খেলা শেষে আন্তর্জাতিক মহিলা মাস্টার শামীমা আক্তার লিজা ও গতবারের জাতীয় মহিলা রানার-আপ শারমীন সুলতানা শিরিন ৭ পয়েন্ট করে নিয়ে যুগ্মভাবে পয়েন্ট তালিকায় শীর্ষে রয়েছেন।

 

সাড়ে ছয় পয়েন্ট নিয়ে চট্টগ্রামের তনিমা পারভীন দ্বিতীয় স্থানে এবং ছয় পয়েন্ট করে নিয়ে আন্তর্জাতিক মহিলা মাস্টার রানী হামিদ ও আহেলী সরকার তৃতীয় স্থানে রয়েছেন। আজ জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের পুরাতন ভবনের তৃতীয় তলাস্থ দাবা ক্রীড়া কক্ষে অনুষ্ঠিত অষ্টম রাউন্ডের খেলায় লিজা সপ্তম রাউন্ড পর্যন্ত এককভাবে শীর্ষে থাকা শিরিনকে, তনিমা গতবারের জাতীয় মহিলা চ্যাম্পিয়ন নাজরানা খান ইভাকে, রানী হামিদ পিরোজপুরের হামিদা খানকে ও আহেলী বগুড়ার উম্মে তাসলিমা প্রতিভা তালুকদারকে পরাজিত করেন।

 

লিজা সাদা ঘুঁটি নিয়ে রেটি ওপেনিং পদ্ধতি অবলম্বন করে খেলেন। লিজা শিরিনের রাজার দিকে আক্রমণ করে অবস্থান ভাল করে নেন এবং ৪৮ চালের মাথায় জয়ী হন। তনিমা কালো ঘুঁটি নিয়ে সেমি-শ্লাভ ডিফেন্স অবলম্বন করে খেলেন, মধ্য পর্যায়ে তনিমা ২৮ চালে একটি এবং ৩৩ চালে আরো একটি সৈন্য অর্জন করে অবস্থান ভাল করে নেন এবং ইভার রাজার দিকে আক্রমণ করে তনিমা ৩৯ চালের মাথায় জয়ী হন।

 

রানী হামিদ সাদা ঘুঁটি নিয়ে হামিদার সিসিলিয়ান ডিফেন্সের বিরুদ্ধে সেভেন ইঞ্জিন বিশ্লেষণ ধারায় খেলে ৩০ চালের মাথায় জয়ী হন এবং আহেলী সাদা ঘুঁটি নিয়ে কুইনস্ গ্যাম্বিট ডিকলাইনড পদ্ধতির খেলায় ৩৭ চালের মাথায় প্রতিভার বিরুদ্ধে জয়ী হন। অন্যান্য খেলায় নারায়ণগঞ্জের মোছাম্মৎ ঝর্না বেগম মহিলা ফিদে মাস্টার জাকিয়া সুলতানা সাথে ও ওয়ালিজা আহমেদ নরসিংদীর নোশিন আঞ্জুমের সাথে ড্র করেন। কুষ্টিয়ার দিলারা জাহান নূপুর কিশোয়ারা সাজরীন ইভানাকে, জাহানারা হক রুনু ঠাকুর জানিয়া সুলতানাকে, তাহমিনা আক্তার তিশা ফারজানা হোসেন এ্যানিকে, মহিলা ফিদে মাস্টার আফরোজা খানম বাবলী ইশরাত জাহান দিবাকে, তানজিনা আক্তার তানি কাজী জারিন তাসনিমকে, জান্নাতুল ফেরদৌস ওয়াদিফা আহমেদকে, সিলেটের জোহরাতুল জান্নাত জিসা চট্টগ্রামের রুমাইসা হায়দারকে ও কুমিল্লার  নুশরাত জাহান লিজা গোপালগঞ্জের মারুফা আজাদ সুকন্যাকে পরাজিত করেন।

 

আগামীকাল (সোমবার) সকাল ১১টা থেকে একই স্থানে নবম বা শেষ রাউন্ডের খেলা অনুষ্ঠিত হবে। খেলা শেষে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হবে।

 

এবারের এই প্রতিযোগিতায় ১ লাখ টাকার প্রাইজমানি থাকছে। তার মধ্যে চ্যাম্পিয়ন ২৫ হাজার, রানার-আপ ২০ হাজার, তৃতীয় ১৫ হাজার, চতুর্থ ১০ হাজার, পঞ্চম ৭ হাজার, ষষ্ঠ ৫ হাজার ও সপ্তম থেকে দ্বাদশ প্রত্যেকে ৩ হাজার টাকা করে প্রাইজমানি পাবে। এ ছাড়া ওয়ালটন গ্রুপের পক্ষ থেকে বিজয়ীদের হোম অ্যাপ্লায়েন্স দিয়ে উৎসাহিত করা হবে।