ঢাকা, ০৩ ডিসেম্বর, ২০১৭ ঃ
এলজিআরডি ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মোঃ মসিউর রহমান রাঙ্গাঁ বলেছেন, মহানবী (সঃ) এঁর জীবন ও কর্ম অনুসরণের মাধ্যমে মানবজাতি ইহকাল ও পরকালে মুক্তি পাবে।

জনাব রাঙ্গাঁ আজ গুলিস্তান কাজী বশির মিলনায়তন চত্বরে পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (দঃ) উপলক্ষে আশেকানে গাউছিয়া রহমানিয়া মইনিয়া সহিদীয়া মাইজভান্ডারীয়া উদ্যোগে আয়োজিত জশ্নে জুলুশ পূর্ব সমাবেশে এ কথা বলেন।

শাহ্্সূফী মাওলানা সৈয়দ সহিদ উদ্দিন আহমেদ মাইজভান্ডারী এর সভাপতিত্বে এতে অন্যান্যের মধ্যে আলোচনায় অংশ নেন এ্যাডভোকেট শামসুল হক টুকু এমপি, বীর মুক্তিযোদ্ধা হাজী আব্দুস সাত্তার, মাওলানা মাসুদুর রহমান ও হাফেজ মোঃ আলমগীর।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ইসলাম শান্তি, সাম্য, ভ্রাতৃত্ববোধ ও ন্যায় পরায়ণতার শিক্ষা দেয়। ইসলামের প্রকৃত অনুসারীগণ কখনো জঙ্গি বা সন্ত্রাসি কর্মকান্ড করতে পারে না। ধর্মীয় মূল্যবোধ ও নৈতিকতা বিকাশের মাধ্যমে উদার ও সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি সার্বজনীন সমাজ প্রতিষ্ঠায় সরকার নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। সকল ধর্মীয় জনগোষ্ঠীর মান-মর্যাদা সুরক্ষা এবং নির্বিঘেœ ধর্মীয় আচার-অনুষ্ঠান পালন, ভ্রাতৃত্ববোধ ও ধর্মীয় সম্প্রীতি গড়ে তোলার ক্ষেত্রে চলমান নানামূখী কার্যক্রম চলছে। তিনি বলেন বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির এক উজ্জল দৃষ্টান্ত। এখানে ইসলাম ধর্মের নামে যারা সন্ত্রাস, নৈরাজ্য ও জঙ্গি অপতৎপরতা চালাবে তাদের সমূলে নির্মূল করা হবে। এব্যাপারে হাক্কানী আলেম-ওলামাসহ সকল ধর্মের মানুষকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে ষড়যন্ত্রকারীদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে।

পরে প্রতিমন্ত্রীর নেতৃত্বে গুলিস্তান অনুষ্ঠানস্থল হতে এক জশনে জুলুশ বের হয়ে তা জাতীয় প্রেসক্লাবে এসে শেষ হয়।