গত ১৫ আগস্ট পান্থপথের হোটেল অলিও ইন্টারন্যাশনালে জঙ্গিবিরোধী অভিযানের পর ডিএমপির পক্ষ থেকে আবাসিক হোটেলগুলোকে নতুন নির্দেশনা দিল ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ(ডিএমপি)। উল্লেখযোগ্য বিষয়, এই নিয়ম না মানলে কঠোর শাস্তির বিধান রয়েছে বলেও জানায় ডিএমপি।

নতুন নির্দেশনা অনুযায়ী,

ক. হোটেলে আসা সব অতিথির (বোর্ডার) নাম-ঠিকানা লেখার পাশাপাশি তাঁদের ছবি তুলে রাখতে হবে।

খ. অতিথির পাসপোর্ট বা ড্রাইভিং লাইসেন্সের কপি, ফোন নম্বর রাখতে হবে। ফোন নম্বরে তাৎক্ষণিক কল করে নিশ্চিত হতে হবে নম্বরটি ঠিক আছে কি না।

গ. হোটেলে আর্চওয়ে রাখতে হবে এবং এর ভেতর দিয়ে অতিথিকে নিতে হবে। আর্চওয়ে না থাকলে মেটাল ডিটেক্টর দিয়ে তল্লাশির ব্যবস্থা করতে হবে।

ঘ. অতিথি যতবার হোটেলে প্রবেশ করবেন, ততবারই তাঁকে তল্লাশি করতে হবে। সব লাগেজ স্ক্যানার দিয়ে তল্লাশি করতে হবে।

ঙ. অতিথির সঙ্গে কেউ দেখা করতে এলে তাঁকে ও তাঁর ব্যাগ তল্লাশি করতে হবে। ক্লোজড সার্কিট ক্যামেরা সচল রাখতে হবে।

চ. যানবাহন তল্লাশির (ভেহিক্যাল) স্ক্যানার দিয়ে গাড়িও তল্লাশি করতে হবে।

পান্থপথের অলিও ড্রিম হোটেলে বিপুল বিস্ফোরকসহ জঙ্গি নিহত হবার পর থেকে ডিএমপি এই নির্দেশনা কঠোরভাবে কার্যকর করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এই ব্যবস্থা কার্যকর হলে জঙ্গি তৎপড়তা কমবে এমন ধারণা পুলিশের।

ডিএমপির বরাত দিয়ে আরো জানা যায়, ঢাকা মহানগরের সকল থানায় এই নির্দেশনা পৌছানো হয়েছে। হোটেলমালিকরাও এই নির্দেশনা মানতে শুরু করেছেন বলে জানান তারা।