জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার বিচারিক আদালত পরিবর্তন চেয়ে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার করা আপিল আবেদন খারিজ করে দিয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ।

আজ সোমবার দায়িত্বরত প্রধান বিচারপতি মো. আবদুল ওয়াহ্হাব মিঞার আপিল বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) করা এই মামলা বর্তমানে বিশেষ জজ আদালত-৫–এ বিচারাধীন আছে। ইতিমধ্যে এই মামলায় খালেদা জিয়া আত্মপক্ষ সমর্থন করে মোট চার দিন বক্তব্য দিয়েছেন। আগামী বৃহস্পতিবার আত্মপক্ষ সমর্থনের পরবর্তী তারিখ ধার্য রয়েছে।

আজ আদালতে খালেদার পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী এ জে মোহাম্মদ আলী। দুদকের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী খুরশীদ আলম খান।

আদেশের পর দুদকের আইনজীবী খুরশীদ আলম খান সাংবাদিকদের বলেন, এই আদেশের ফলে মামলাটি বিশেষ জজ আদালত-৫–এ চলবে।

এর মধ্যে ২ কোটি ১০ লাখ ৭১ হাজার ৬৭১ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে করা জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় খালেদা জিয়া ছাড়াও তাঁর বড় ছেলে বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানসহ আসামি ছয়জন। তারেক রহমানের বিরুদ্ধে ইতিমধ্যে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছেন আদালত।

২০০৮ সালে জরুরি অবস্থা চলাকালে মামলাটি দায়ের করে দুদক। ২০১৪ সালে এই মামলায় অভিযোগপত্র গঠন করেন আদালত। মোট তিনবার এই মামলায় আদালত পরিবর্তন হয়েছে।