ঢাকা: বুধবার ১৪ মার্চ, ২০১৮
১৪ মার্চ আন্তর্জাতিক নদীকৃত্য দিবস (ইন্টারন্যাশনাল ডে অভ একশন ফর রিভারস) উপলক্ষে সকালে রাজধানীতে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে মানব্বন্ধন ও জনসমাবেশ থেকে দেশের নদ-নদীরক্ষায় ব্যাপক জনসচেতনতা গড়ার আহ্বান জানিয়েছে মূল আয়োজক ‘নোঙর’সহ সাতটি নদীরক্ষায় কর্মরত চারটি সংগঠন।
নদী নিরাপত্তার সংগঠন নোঙরের সাথে গ্রিন বাংলা কোয়ালিশন, ষোলআনা বাঙ্গালি, ধলেশ্বরী ও বংশী নদী রক্ষা আন্দোলনের প্রতিনিধিরা এ মানববন্ধনে যোগ দিয়ে নদীবিধৌত বাংলাদেশের নদ-নদীকে দখল-দূষণ থেকে মুক্ত ও নাব্য রাখতে গণসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে এবিষয়ে ব্যাপক প্রচারের জন্য তথ্যমন্ত্রীর প্রতি আহ্বান জানায়। ফেনী সফররত মন্ত্রীর কাছে এখবর পৌঁছুলে হাসানুল হক ইনু তাদের দাবির সাথে একমত পোষণ করে বিষয়টি গণমাধ্যমের সহায়তায় অধিকতর প্রচারের প্রচেষ্টা নেবেন বলে জানান।
১৯৯৭ সালের ১৪ মার্চ ব্রাজিলের কুরিটিবা নামক শহরে ২০টি দেশের মানুষের অংশগ্রহণে শুরু হওয়া এ আন্দোলনের ধারাবাহিকতায় বুধবারের মানববন্ধনে নোঙর সভাপতি সুমন শামস বলেন, ‘দেশ ও বিশে^র নদ-নদীরক্ষার মহান ব্রতে পৃথিবীর সকল মানুষ আমাদের সাথে রয়েছে। কারণ নদীর সাথে জড়িয়ে আছে কোটি কোটি মানুষের জীবনযাত্রা ও সুখ-দুঃখ।’
গ্রিন বাংলা কোয়ালিশন’র আহ্বায়ক শামসুল মোমেন পলাশ, ধলেশ্বরী ও বংশী বাঁচাও আন্দোলন’র সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মাহাবুব আহমদ, ষোলআনা বাঙ্গালি’র সভাপতি আর আই শেখর, ক্যাপ্টেন আব্দুল্লাহ মাহমুদ, নোঙর’র উপদেষ্টা ও বিআইডব্লিউটিএ’র সাবেক প্রকৌশলী তোফায়েল আহমেদ তাদের বক্তব্যে নদীকে আঞ্চলিক সৌহার্দ্য ও বিশ^বন্ধনের প্রতীক হিসেবে বর্ণনা করে সকল অভিন্ন নদীর পানি সুষম বন্টনের মধ্য দিয়ে জলবায়ু পরিবর্তনের অভিঘাত থেকে বিশ^কে রক্ষায় রাজনৈতিক উদ্যোগের আহ্বান জানান।
সমাবেশ ও মানববন্ধনে আাে বক্তব্য রাখেন পরিবেশকর্মী মো: ইদ্রিস আলী, শিশির দাস, মো: বাদল হাওলাদার, ইঞ্জি. শাহ আলম; নদীকর্মী আমিনুল হক চৌধুরী, আমিনুল ইসলাম তুহিন, এড. রওশন আরা সিকদার ডেইজী, রুহুল আমিন, সরকার সজিব, লাবণী লুবনা, খালেদা পারভিন শিখা, মো: মাজেদুল হক, অসিত বরণ সরকার প্রমূখ।